• শিরোনাম

    নিয়ন্ত্রণ সংস্থার বিরুদ্ধে অপরাধীদের প্রতি পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ

    মোহাম্মদী খানমের ছাড়পত্র আদায়ে কঠোর কেন আইডিআরএ

    বিবিএনিউজ.নেট | ২০ আগস্ট ২০২০ | ৬:২২ অপরাহ্ণ

    মোহাম্মদী খানমের ছাড়পত্র আদায়ে কঠোর কেন আইডিআরএ

    অর্থ পাচার, বেতনের অতিরিক্ত অর্থ গ্রহণ ও আত্মসাতের দায়ে প্রাইম ইন্স্যুরেন্সের সিইও থেকে পদত্যাগ করেন মোহাম্মদী খানম। কিন্তু প্রতিষ্ঠানের হিসাব যথাযথভাবে বুঝিয়ে না দেয়ায় ছাড়পত্র পাননি। এবার ছাড়পত্র দিতে বীমা প্রতিষ্ঠানটিকে চাপ দিচ্ছে স্বয়ং নিয়ন্ত্রণ সংস্থা আইডিআরএ। সংস্থাটির বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ পাওয়া গেছে সংশ্লিষ্ট সূত্রে।

    সূত্র জানায়, গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর মোহাম্মদী খানমকে ছাড়াপত্র দিতে নিয়ন্ত্রণ সংস্থা থেকে চিঠি দেয়া হয়েছে প্রতিষ্ঠানে। কিন্তু এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে পদক্ষেপ না নেয়ায় গত ১৬ আগষ্ট ফের চিঠি দেয় আইডিআরএ। শুধু তাই নয়, ছাড়পত্র না দিলে বীমা আইন ২০১০ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও হুমকি দেয়া হয় বলে জানা গেছে।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    অপরাধ ও নৈতিক স্থলনের দায়ে দোষী সাব্যস্ত একজন মুখ্য কর্মকর্তার পক্ষে আইডিআরএ’র এমন অবস্থানে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন বীমা সংশ্লিষ্টরা। ইতোপূর্বেও আইডিআরএ’র এমন আচরণ লক্ষ্য করা গেছে বলে জানান তারা। ফলে অপরাধীকে প্রশ্রয় দেয়ায় এবার খোদ নিয়ন্ত্রণ সংস্থার প্রতি উঠলো অভিযোগের আঙুল।

    জানা গেছে, ২০১২-১৭ সাল পর্যন্ত প্রাইম ইন্স্যুরেন্স থেকে দুই কোটি ৪৩ লাখ টাকা পাচার হয়েছে। এই বিপুল অংকের টাকার হিসাব মেলাতে পরবর্তীতে মিথ্যার আশ্রয় নেয় সিইও মোহাম্মদী খানম ও প্রতিষ্ঠানের কতিপয় কর্মকর্তা। প্রায় তিনগুন থেকে চারগুন বেশি করে বিভিন্ন হিসাব লেখা হয়। এর মধ্যে যাতায়াত, স্টেশনারী ও বিনোদন খাতে ব্যাপক কারচুপি করা হয় বলে জানা গেছে। পরবর্তীতে বাংলাদেশ ব্যাংকের ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট এবং আইডিআরএ’র তদন্তে অর্থ পাচার ও আত্মসাতের বিষয়গুলো বেরিয়ে আসে। এরপরও মোহাম্মদী খানমের বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা নেয়নি আইডিআরএ। উল্টো তার ছাড়পত্র আদায়ে পালন করছে ভূমিকা। নিয়ন্ত্রণ সংস্থার এমন আচরণকে সন্দেহজনক বলছেন অনেকেই।


    ইতোপূর্বেও আইডিআরএ’র কতিপয় সদস্য ও কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দোষী ব্যক্তির পক্ষ অবলম্বনের অভিযোগ রয়েছে। ২০১৯ সালে হোমল্যাণ্ড লাইফ ইন্স্যুরেন্সের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তাকে যোগ্যতা না থাকা সত্ত্বেও নিয়োগদান সম্পর্কে জানতে চাইলে বিষয়টি সুকৌশলে এড়িয়ে যান তৎকালীন সদস্য গোকুল চাঁদ দাস। এছাড়া পূরবী জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের বিভিন্ন অনিয়ম সম্পর্কে জেনেও কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না নিয়ন্ত্রণ সংস্থাটি।

    Facebook Comments

    বাংলাদেশ সময়: ৬:২২ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২০ আগস্ট ২০২০

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    পারিবারিক বলয়ে বন্দী সানলাইফ

    ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি