• শিরোনাম

    পদ্মা ব্যাংক দেশের গণমানুষের স্বপ্ন পূরণের সারথি হিসেবে কাজ করতে চায়

    | ২১ জানুয়ারি ২০১৯ | ৮:৫০ অপরাহ্ণ

    পদ্মা ব্যাংক দেশের গণমানুষের স্বপ্ন পূরণের সারথি হিসেবে কাজ করতে চায়

    গ্রাহকদের নিরাপদ ব্যাংকিং সেবা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়ে যাত্রা করল পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড। গতকাল রাজধানীর হোটেল ওয়েস্টিনে জমকালো অনুষ্ঠানে ব্যাংকটির লোগো উন্মোচন করা হয়। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, অতীতের ভুলত্রুটি থেকে শিক্ষা নিয়ে পথ চলতে চাই। পদ্মা ব্যাংক দেশের গণমানুষের স্বপ্ন পূরণের সারথি হিসেবে কাজ করতে চায়।

    চলতি বছরের ২৯ জানুয়ারি থেকে পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড নামে কার্যক্রম শুরু করেছে ফারমার্স ব্যাংক। ব্যাংকটির ৬৮ শতাংশ শেয়ারের বর্তমান অংশীদার রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী, অগ্রণী, জনতা ও রূপালী ব্যাংক এবং ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি)। নতুন লোগো উন্মোচনের মাধ্যমে গতকাল থেকে নতুনভাবে যাত্রা করেছে ব্যাংকটি।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক-বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এসএম মনিরুজ্জামান। পদ্মা ব্যাংকের চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ সরফাতের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান কাজী আকরাম উদ্দিন আহ্মদ, সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ওবায়েদ উল্লাহ্ আল মাসুদ, অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শামস-উল-ইসলাম, জনতা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আব্দুছ ছালাম আজাদ, রূপালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আতাউর রহমান প্রধান এবং আইসিবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী সানাউল হক। অনুষ্ঠানে পদ্মা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. এহসান খসরু স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

    প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. মসিউর রহমান বলেন, পদ্মার ইতিহাস অনেক গর্বের আবার দুঃখেরও। পদ্মা সেতু নির্মাণ শুরুর আগেই বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশকে একটি দুর্নীতিপরায়ণ দেশ হিসেবে চিহ্নিত করার চক্রান্ত করেছিল। কিন্তু সেই মঞ্চেই আমরা সারা পৃথিবীর সামনে দুর্নীতিমুক্ত বলে প্রমাণ করেছি। এখন সেই পদ্মার নামে ব্যাংক হচ্ছে। তাই পদ্মার সেই কথা স্মরণ করে পদ্মা ব্যাংককেও গ্রাহকদের কাছে দুর্নীতিমুক্ত বলে প্রমাণ করতে হবে।

    নতুন নামে ব্যাংকটির সফলতা কামনা করে ড. মসিউর রহমান বলেন, সরকারি ব্যাংকের এমডিরা পদ্মা ব্যাংকের পর্ষদে আছেন। ক্রমান্বয়ে ব্যক্তি উদ্যোক্তারাও এখানে আসবে। পদ্মা নামে যে ব্যাংকের যাত্রা হলো, সেটি যেন সফল হয়।

    পদ্মা ব্যাংকের পরিচালক ও ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম বলেন, সরকার আপনাদের প্রতিশ্রুতিগুলোর বাস্তবায়ন চায়। পদ্মা ব্যাংক দেশের ব্যাংকিং খাতের আগ্রদূত এবং সেরা ব্যাংক হোক। ব্যবসায় ভালো কিংবা খারাপ সময় আসতে পারে। কিন্তু এ ব্যাংক নিয়ে যেন কোনো নেতিবাচক সংবাদ আর না শুনি—এটিই প্রত্যাশা।

    অনুষ্ঠানে পদ্মা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এহসান খসরু বলেন, আমরা ফারমার্স ব্যাংকের কার্যক্রম নিয়ে অত্যন্ত বদনামের মুখে পড়েছিলাম। এখন সরকারের অন্যান্য ব্যাংক ও প্রতিষ্ঠানের সহায়তায় আমরা ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় নিয়ে সফলতার নতুন রাস্তায় উঠতে নাম পরিবর্তন করে কার্যক্রম শুরু করেছি। তিনি বলেন, আমরা আমাদের আমানতকারী ও শেয়ারহোল্ডারদের নিরাপদ সফল ব্যাংকিংয়ের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি। চলতি বছরের মধ্যে আমাদের মন্দ ঋণ ৪০ শতাংশে নেমে আসবে বলে আশা করছি।

    Facebook Comments

    বাংলাদেশ সময়: ৮:৫০ অপরাহ্ণ | সোমবার, ২১ জানুয়ারি ২০১৯

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি