শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল আর নেই

  |   মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৯   |   প্রিন্ট   |   725 বার পঠিত

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল আর নেই

একুশে পদকপ্রাপ্ত বরেণ্য সুরকার, গীতিকার, সংগীত পরিচালক মুক্তিযোদ্ধা আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল আর নেই (ইন্না লিল্লাহি…. রাজিউন)। মঙ্গলবার সকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পরপারে পাড়ি জমান এই কীর্তিমান। তার বয়স হয়েছিল ৬৩ বছর।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, রাজধানীর আফতাবনগরের বাসায় হার্ট অ্যাটাক হলে বুলবুলকে মঙ্গলবার সকালে ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

দীর্ঘদিন ধরে তিনি হৃদযন্ত্রের জটিলতায় ভুগছিলেন। হার্টে ব্লক ধরা পড়ায় গতবছর জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে তার অস্ত্রোপচারও করা হয়েছিল।

দীর্ঘ চার দশকের বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে সংগীতজগতে অবদানের জন্য আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল রাষ্ট্রীয় সম্মাননা একুশে পদক, রাষ্ট্রপতির পুরস্কারসহ বিভিন্ন পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। তিন শতাধিক চলচ্চিত্রের সংগীত পরিচালনা করেছেন তিনি। চলচ্চিত্রের সংগীত পরিচালনা করে দুই বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও পেয়েছেন।

মাত্র ১৫ বছর বয়সে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়া আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের সুর করেছেন বেশ কিছু কালজয়ী দেশের গানে। এর মধ্যে উল্লেখ যোগ্য ‘সব কটা জানালা খুলে দাও না’, ‘ও মাঝি নাও ছাইড়া দে ও মাঝি পাল উড়াইয়া দে’, ‘সুন্দর সুবর্ণ তারুণ্য লাবণ্য’ প্রভৃতি।

এছাড়া তার ‘সেই রেললাইনের ধারে’, ‘মাগো আর তোমাকে ঘুম পাড়ানি মাসি হতে দেব না’, ‘একতারা লাগে না আমার দোতারাও লাগে না’, ‘আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি’, ‘আমার বুকের মধ্যিখানে’, ‘আমার বাবার মুখে প্রথম যেদিন’, ‘আমি তোমার দুটি চোখে দুটি তারা হয়ে থাকব’, ‘আমার গরুর গাড়িতে বউ সাজিয়ে’ প্রভৃতি তার অমর কীর্তি।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ১০:১৮ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৯

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।