• ঈদের আগে কারখানা থেকে শ্রমিক ছাঁটাই করা যাবেনা : শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ১০ মে ২০২০ | ১১:২৫ অপরাহ্ণ

    ঈদের আগে কারখানা থেকে শ্রমিক ছাঁটাই করা যাবেনা : শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়
    apps

    শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, আসন্ন ঈদ উল ফিতরের আগে কোন কারখানা থেকে শ্রমিক ছাঁটাই বা লে-অফ ঘোষণা করা যাবেনা। আজ রোববার (১০ এপ্রিল) শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব নির্দেশনা বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে।
    এতে বলা হয়, যে সকল শ্রমিক এপ্রিল মাসজুড়ে কারখানাতে কর্মরত ছিলেন তাদের পূর্ণ বেতন ভাতা প্রদান করতে হবে। অনুপস্থিত শ্রমিকরা মূল বেতনের ৬৫ শতাংশ বেতন পাবেন।
    বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শ্রমিকরা এপ্রিল মাসে কয়েকদিন কাজ করে থাকলে, দিন অনুযায়ী পূর্ণ বেতন, বোনাস ও বাকি দিনগুলোর মূল বেতনের ৬৫ শতাংশ বেতন-বোনাস পাবেন। ঘোষিত ৬৫ শতাংশ বেতনের মধ্যে এপ্রিলের বেতন ৬০ শতাংশ, বাকি ৫ শতাংশ মে মাসের বেতন থেকে সমন্বয় করা হবে।
    বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, মে মাসের ১০ থেকে ১৫ তারিখের মধ্যে পুনরায় বৈঠকের মাধ্যমে পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।
    এদিকে কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় সরকার ঘোষিত ৫ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় তৈরি পোশাকখাতের শ্রমিকরা এপ্রিল মাসের বেতন পেতে শুরু করেছেন। রফতানিমুখী তৈরি পোশাক কারখানার আবেদনের প্রেক্ষিতে ব্যাংকগুলো বেশ কয়েক দিন আগে থেকেই সহজ শর্তের এই ঋণ বিতরণ শুরু করেছে।
    রফতানিমুখী তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ’র ভাইস প্রেসিডেন্ট ফয়সাল সামাদ বলেন, ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি কারখানার শ্রমিকরা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে বেতন পেয়ে গেছেন। বাকি কারখানাগুলো খুব শীঘ্রই বেতন পরিশোধ করবে বলে তিনি জানান। এই বেতন মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমেই দেয়া হবে।
    সূত্র জানায়, বিজিএমইএ-র মোট ২ হাজার ২৭৪ সদস্যের মধ্যে প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ঋণের আবেদন করেছে ১ হাজার ৬১৫টি প্রতিষ্ঠান। তাদের সবাইকেই ঋণ আবেদনের সনদ প্রদান করেছে বিজিএমইএ। অন্যদিকে বাংলাদেশ নিটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিকেএমইএ) ২ হাজার ৬১৪ সদস্যের মধ্যে আবেদন করেছে ৮৩৩টি প্রতিষ্ঠান। তারাও ব্যাংকের কাছে ঋণ আবেদনের সনদ পেয়েছে। তথ্য অনুযায়ী প্রায় ১ হাজার পোশাক কারখানা তহবিলের জন্য আবেদন করতে সক্ষম নয়।
    উৎপাদনের ন্যুনতম ৮০ শতাংশ পণ্য রফতানি করছে এমন সচল প্রতিষ্ঠান এই প্যাকেজের আওতায় সুদবিহীন সর্বোচ্চ ২ শতাংশ হারে সার্ভিস চার্জ দিয়ে ঋণ নিতে পারবে।

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ১১:২৫ অপরাহ্ণ | রবিবার, ১০ মে ২০২০

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    রডের দাম বাড়ছে

    ১৩ জানুয়ারি ২০১৯

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি