• আস্থা বাড়ছে গ্রাহক ও বিনিয়োগকারীদের

    এজিএম কার্যক্রমে শীর্ষে নিটল ইন্স্যুরেন্স

    নিজস্ব প্রতিবেদক: | ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ৬:১৫ অপরাহ্ণ

    এজিএম কার্যক্রমে শীর্ষে নিটল ইন্স্যুরেন্স
    apps

    ২০১৮ অর্থবছরে বীমা কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবার আগে ক্লোজিং ও অডিট সম্পন্ন করে এজিএমের সময় নির্ধারণ করায় বিনিয়োগকারীদের দৃষ্টি কেড়েছে নিটল ইন্স্যুরেন্স। এছাড়াও এজিএম পরিচালনায় বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এবং বীমা উন্নয়ণ ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের (আইডিআরএ) নির্ধারিত মাণদণ্ড অনুসরণ করায় ইতিমধ্যেই গ্রাহকদের আস্থা অর্জন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট এ কে এম মনিরুল হকের পরিকল্পনা এবং দিক-নির্দেশনায় এটা সম্ভব হয়েছে। এমনটাই মনে করেন মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম মাহবুবুল করিম।

    নিটল ইন্স্যুরেন্স ধারাবাহিকভাবে ব্যবসায়িক সফলতার পাশাপাশি আর্থিক প্রতিবেদনে স্বচ্ছতা ও নিয়ম-নীতি মেনে সঠিক সময়ের মধ্যে বার্ষিক সাধারণ সভা সম্পন্ন করায় প্রশংসা কুঁড়িয়েছে গ্রাহক ও বীমা বিশেষজ্ঞদের। বিগত বছরগুলোতে যার প্রমাণ পাওয়া যায়। প্রতিষ্ঠানটির ২০১৭ সালের ১৯তম বার্ষিক সাধারণ সভা রাজধানীর গুলশানস্থ স্পেক্ট্রা কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত হয়েছিল। যেখানে উপস্থিত শেয়ারহোল্ডারা বার্ষিক প্রতিবেদনসহ অন্যান্য বিষয়ে দীর্ঘ দুই ঘন্টাব্যাপী দিক-নির্দেশনামূলক আলোচনা করেন।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    আলোচ্য বছরে একমাত্র নিটল ইন্স্যুরেন্সই সদ্য সমাপ্ত (২০১৮) বছরের ক্লোজিং করে তিন মাসের মধ্যে এজিএম তারিখ নির্ধারণে সক্ষম হয়েছে। যা পুঁজিবাজার তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর জন্য একধরনের চ্যালেঞ্জ। এটি কোম্পানির স্বচ্ছতা এবং সক্ষমতাও প্রকাশ করে। তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলো উল্লিখিত সময়ের মধ্যে এজিএম সম্পন্ন করলে ক্রেডিট রেটিং এজেন্সি থেকে অতিরিক্ত নাম্বার প্রদান করা হয়। যে রেটিংয়ের মাধ্যমে কোম্পানির ফিন্যান্সিয়াল স্ট্যাবিলিটি জানা যায়। আলোচ্য বছরে বীমা সেক্টরে এক্ষেত্রে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে নিটল ইন্স্যুরেন্স। এতে প্রতিষ্ঠানটির গ্রাহক ও বিনিয়োগকারীদের আস্থা উত্তরোত্তর বাড়বে বলে মনে করেন বীমা সংশ্লিষ্টরা। উল্লেখ্য, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ক্লোজিং-অডিট ও এজিএম সম্পন্নকারী বীমা কোম্পানিগুলোর মধ্যে গতবছর দ্বিতীয় অবস্থানে ছিলো নিটল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড।

    প্রতিষ্ঠানটি তার ব্যবসায়িক কার্যক্রমে সাফল্যের স্বীকৃতিস্বরূপ সিএমও এশিয়া কর্তৃক ব্রান্ড লিডারশীপ ক্যাটাগরিতে- ‘বাংলাদেশ মাস্টার ব্রান্ড অ্যাওয়ার্ড-২০১৮’ এবং ইন্ডিয়ান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ কর্তৃক ব্যাংককে আয়োজিত ‘ইমার্জিং এশিয়া অ্যাওয়ার্ড-২০১৮’র ইন্স্যুরেন্স ক্যাটাগরিতে অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন। এছাড়াও স্বচ্ছ বার্ষিক প্রতিবেদনের জন্য ব্যাংক বীমা অর্থনীতি পত্রিকা কর্তৃক ‘বেস্ট অ্যানুয়াল রিপোর্ট অ্যাওয়ার্ড’ ইতিমধ্যে অর্জন করেছে।


     

    সূত্র: জে.আই/বিবিএ/ঢাকা

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ৬:১৫ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি