শুক্রবার ২১ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ক্রেস্ট সিকিউরিটিজ

এমডি ও মালিকপক্ষের বিরুদ্ধে বিনিয়োগকারীদের জিডি

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শুক্রবার, ২৬ জুন ২০২০   |   প্রিন্ট   |   407 বার পঠিত

এমডি ও মালিকপক্ষের বিরুদ্ধে বিনিয়োগকারীদের জিডি

ক্রেস্ট সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) শহীদ উল্লাহ সহ হাউজ এর মালিক পক্ষের বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে বিনিয়োগকারীরা। অনুমতি ছাড়া শেয়ার বিক্রি, অর্থ জালিয়াতি, চেক ডিজঅনার এবং ঋণের অর্থসহ সকল টাকা নিয়ে লাপাত্তা হয়ে যাওয়ার কারণে বিনিয়োগকারীরা জিডি করেছে ।
বৃহস্পতিবার পল্টন থানায় এ জিডি করেন ক্রেস্ট সিকিউরিটিজের বিও হিসাবধারী হাজী মো. নিশাত। এ বিষয়ে বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কাজী আব্দুর রাজ্জাক ও মো. জাহাঙ্গীর আলম, নাছিমা আক্তার, মো. শহীদ উল্লাহ, সুব্রত কুমার সরকার, সোহেল আহমেদ, মো. আনিসুর রহমান, রাহাত তানভীর, মো. জাকির হওলাদার ও মো. নাজির আহমেদ উপস্থিত থেকে সম্মতি জ্ঞাপন করেন।

জিডিতে বিনিয়োগকারী হাজী মো. নিশাত উল্লেখ করেন, পূর্ব পরিচিতি ও পরিচয়ের সূত্র ধরে ক্রেস্ট সিকিউরিটিজের সাথে শেয়ার ও নগদ টাকা লেনদেন করি। আমাদেরকে না জানিয়ে শেয়ার বিক্রি করে দেয় এবং টাকা পরিশোধ না করে ক্রেস্ট সিকিউরিটিজ নিজেরা উত্তোলন করে নেয় ।এবং আমাদের কারো কারো কাছ থেকে নগদ টাকা ঋণ হিসেবে গ্রহণ করে এর বিপরীতে চেক প্রদান করে।

জিডিতে উল্লেখ্য যে, হাজী মো. নিশাত
এর কাছ থেকে শেয়ার অ্যাকাউন্ট নম্বর ৪৯ ও ১৭৭০০ এর মাধ্যমে ৩ লাখ টাকা এবং চেকের মাধ্যমে ৯৫ লাখ টাকা ঋণ গ্রহণ করেন । এছাড়া ৯১ লক্ষ, ৪৪ লক্ষ, ১১ লক্ষ, ১৫ লক্ষ, ১৬ লক্ষ ও ২২ লক্ষ সহ জিডিতে উল্লেখ করা বিনিয়োগকারীদের বিভিন্ন অংকের টাকা লেনদেন হয় ক্রেস্ট সিকিউরিটিজের সাথে।

এছাড়া বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ ও বিনিয়োগকারীরা ক্রেস্ট সিকিউরিটিজের প্রধান অফিসের সামনে বিক্ষোভ করেন।

এ বিষয়ে পল্টন মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবু বকর সিদ্দিক বলেন, অনৈতকিভাবে শেয়ার বিক্রির অভিযোগ নিয়ে বিনিয়োগকারীরা একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। এর আগেও এ বিষয়ে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কাজী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ক্রেস্ট সিকিউরিটিজের প্রতারণার কারণে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। এ জন্য দ্রুত বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি), ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জকে (সিএসই) ক্রেস্ট সিকিউরিটিজের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।

উল্লেখ্য, ক্রেস্ট সিকিউরিটিজ গত সোমবার থেকে কোনরকম ঘোষণা ছাড়াই তাদের অফিস বন্ধ করে দেয়। এতে করে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয় এবং হাউসের মালিক পক্ষের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাদের ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। হাউজের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের বাসায় গেলে সেখানে তাকে পাওয়া যায় না। এবং মালিকপক্ষের কাউকেই খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

এছাড়া বিনিয়োগকারীদের অর্থ পরিশোধের জন্য যে চেক দেওয়া হয়েছে সেই চেক ডিজঅনার হয়ে যায়। এবং তারা জানতে পারেন ব্যাংক একাউন্টে কোন টাকা নেই।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ৭:১২ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ২৬ জুন ২০২০

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।