বৃহস্পতিবার ৩০ মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সবার জন্য আইপিও

কতটা লাভবান হবেন বিনিয়োগকারীরা

  |   রবিবার, ১০ জানুয়ারি ২০২১   |   প্রিন্ট   |   341 বার পঠিত

কতটা লাভবান হবেন বিনিয়োগকারীরা

সম্প্রতি পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে লটারি প্রথা উঠিয়ে দেয়ার লক্ষ্যে একটি রোডম্যাপ তৈরি করেছে। সে অনুযায়ী, বিনিয়োগকারীরা প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) আবেদন করলে সবাই শেয়ার পাবেন। তবে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের পুঁজিবাজারে ন্যূনতম বাজারমূল্যে ২০ হাজার টাকা বিনিয়োগ থাকতে হবে। এমন বিধান রেখে আইপিওর সংশোধনী চ‚ড়ান্ত করেছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সাধারণ বিনিয়োগকারীদের মধ্যে বিদ্যমান লটারি ব্যবস্থার পরিবর্তে আনুপাতিক হারে শেয়ার বরাদ্দ দেয়া হবে।

আইপিওর শেয়ার পেতে সেকেন্ডারি মার্কেটে বিনিয়োগ থাকতে হবেÑএমন শর্তের কারণে লাখ লাখ বিও বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তবে বিএসইসি মনে করছে, সবার জন্য আইপিওর শেয়ার এটা ভালো সিদ্ধান্ত। এতে সব বিনিয়োগকারী উপকৃত হবেন। যে বিওগুলো বন্ধ হয়ে যাবে, তা অপ্রয়োজনীয় অ্যাকাউন্ট। কিছু সুযোগ সন্ধানী মানুষ ভিন্ন ভিন্ন নামে এসব বিও খুলেছেন। তাদের জন্য যারা প্রকৃত বিনিয়োগকারী, তারা আইপিওর শেয়ার পান না। তাই সবার জন্য আইপিও শেয়ার বরাদ্দ হলে তাতে সাধারণ বিনিয়োগকারীরাই উপকৃত হবেন।

এছাড়া কমিশন বুকবিল্ডিং পদ্ধতিতে বিডিং ও প্রসপেক্টাস প্রকাশের জন্য বিদ্যমান দুদফায় সম্মতিপত্র দেয়ার পরিবর্তে উভয়ের জন্য একসঙ্গে সম্মতিপত্র প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কমিশনের এসব সিদ্ধান্ত আগামী ১ এপ্রিল থেকে কার্যকর হবে।

২০১০ সালের ভয়াবহ ধসের পর আর স্বরূপে ফিরতে পারেনি পুঁজিবাজার। মাঝেমধ্যে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলেও আবারো পতনের ধাক্কা লেগেছে বাজারে। ফলে বাজারবিমুখ হয়ে পড়েছেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা। এমতাবস্থায় সম্প্রতি বিএসইসি নানা ধরনের উদ্যোগ নিচ্ছে পুঁজিবাজারে আস্থা ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে। এর মধ্যে বেশকিছু পদক্ষেপ প্রশংসিত হচ্ছে। এর কিছুটা প্রভাব বাজারে পড়েছে। গত বছরের শেষদিকে পুঁজিবাজারে সূচক ও লেনদেন অনেকখানি বেড়েছে। বিশেষ করে গত বছরের একসময় দেড়শ কোটিতে নেমে আসা লেনদেন সম্প্রতি আড়াই হাজার কোটি টাকায় উন্নীত হয়েছে। এটি পুঁজিবাজারের দিক থেকে বড় ধরনের পরিবর্তন। তবে সবকিছুর মূলকথা হচ্ছে ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের লাভবান করার বিষয়টি। এখন দেখা দরকার এতে কতটা কাজ হয়।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ১১:০২ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ১০ জানুয়ারি ২০২১

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।