শুক্রবার ২১ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উপবন এক্সপ্রেস দুর্ঘটনা

‘কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণেই রেলপথে মৃত্যুফাঁদ তৈরি হয়েছে’

বিবিএনিউজ.নেট   |   বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯   |   প্রিন্ট   |   519 বার পঠিত

‘কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণেই রেলপথে মৃত্যুফাঁদ তৈরি হয়েছে’

রেল কর্তৃপক্ষের অবহেলা ও যথাসময়ে রেললাইনের সংস্কারের অভাবে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার বড়ছড়া সেতুতে ‘উপবন এক্সপ্রেস’ দুর্ঘটনায় পড়েছে বলে জানিয়েছে যাত্রী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। আজ ২৭ জুন, বৃহস্পতিবার সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সামসুদ্দীন চৌধুরীর স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিবৃতিতে এই তথ্য জানান।

সংগঠনটি বলছে চার মাস ধরে কুলাউড়ার বরমচালের দুর্ঘটনাকবলিত এই সেতু দিয়ে যখন ট্রেন চলত তখনই লক্কড়ঝক্কড় করত। স্লিপারের কোথাও নাট নেই আবার কোথাও ক্লিপ নেই, সময় মতে রেলকর্মীরা মেইনটেন্যান্স করতেন না এবং ট্রেনটির চালক অতিরিক্ত গতি বাড়িয়ে ট্রেন চালানো এই দুর্ঘটনার জন্য দায়ী।

দেশের ২ হাজার ৯২৯ কিলোমিটার রেলপথে ৩ হাজার ১৪৩টি ছোট-বড় কালভার্ট ব্রিজ রয়েছে। রেল কর্তৃপক্ষের বছরভিক্তিক জরিপে বলা হয়েছে প্রায় চারশ ব্রিজ-কালভার্ট এখন চলাচলের অনুপযোগী বা ঝুঁকিপূর্ণ। কিন্তু ঝুকিপূর্ণ এই ব্রিজ-কালভার্টগুলো সংস্কার না করে রেলপথকে ঝুঁকিপূর্ণ তৈরি করেছে এবং যাত্রী সাধারণকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে রেলপথ কর্তৃপক্ষ। রেলের এ সব ঝুঁকিপূর্ণ সেতুর সংস্কার বা কোনো কোনো সেতু পুনর্নির্র্মাণের লক্ষ্যে প্রকল্প হাতে নিলেও বছরের পর বছর ধরে ফাইলবন্দি হয়ে আছে। সেতু নির্মাণের বিষয়ে রেল কর্তৃপক্ষের উদাসীনতাই এ জন্য দায়ী।

রেলপথে সার্বিক জরিপ বা নিয়মিত তদারকি নেই বলে দাবি করে সংগঠনটি বলছে, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর রেলওয়ের ওপর বিশেষ নজর দিয়ে ইঞ্জিন কোচ বৃদ্ধি, ব্রডগেজ লাইন তৈরি, বন্ধ হয়ে যাওয়া রেলপথ পুনরায় চালু ইত্যাদি উদ্যোগ বাস্তবায়নের কাজ চলছে। কিন্তু রক্ষণাবেক্ষণ নজরদারি বা তদারকির দিকে দৃষ্টি নেই রেল কর্তৃপক্ষের। ফলে ব্রিজ ভেঙে, ¯িøপার না থাকায় লাইনচ্যুত হয়ে রেল দুর্ঘটনায় ঘটছে। খোদ রাজধানীর বুক চিরে তৈরি রেলপথের অধিকাংশ জায়গায় রেললাইনে নাটবল্টুও নেই, বাঁকা হয়ে আছে রেলের পাত।

সংগঠনটি বলছে আমাদের দেশে রীতি হয়ে গেছে দুর্ঘটনা না ঘটলে, লাশের মিছিল তৈরি না হলে কর্তৃপক্ষ সচেতন হয় না। যত দোষ সব যাত্রী সাধারণের। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, অতিরিক্ত যাত্রীর কারণেই দুর্ঘটনা ঘটেছে। অথচ হযবরলভাবে রেল কর্তৃপক্ষের অবহেলা ও যথাসময়ে সংস্কারের অভাবেই যে দুর্ঘটনা ঘটেছে, তা রেলপথ মন্ত্রণালয়ে শুধু কাগজকলমে তদন্ত কমিটি গঠন করে থাকে। এবারের দুর্ঘটনায় শুধু তদন্ত নয় সংশ্লিষ্ট কাজে অবহেলায় জড়িত ব্যক্তিদের শাস্তির দাবি করছে যাত্রী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ ।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ৩:৪৪ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।