বৃহস্পতিবার ৩০ মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দুই দেশে জয়ার দুই ছবি…

  |   বৃহস্পতিবার, ০৩ জানুয়ারি ২০১৯   |   প্রিন্ট   |   1033 বার পঠিত

দুই দেশে জয়ার দুই ছবি…

অভিনেত্রী জয়া আহসান গত বছর ছিলেন বাংলা ছবির বাজারের সবচেয়ে আলোচিত অভিনেত্রী। কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস ‘দেবী’কে চলচ্চিত্রে রূপান্তর করে একই সঙ্গে প্রযোজক ও অভিনেত্রী হিসেবে প্রশংসা কুড়িয়েছেন সবখান থেকে। এ বছরও নিজের সফলতার গল্পকে সবার সামনে এগিয়ে রাখতে চান জয়া। এজন্য এবার হয়তো কৌশলটা একটু অন্যভাবে সাজিয়েছেন তিনি। সম্ভবত এর প্রথম প্রমাণটি মিলতে যাচ্ছে আগামীকাল। এদিন বাংলাদেশ ও কলকাতার প্রেক্ষাগৃহে একই সঙ্গে মুক্তি পাচ্ছে জয়ার দুই ছবি। কলকাতায় নির্মিত এ ছবি দুটি যথাক্রমে ‘বিসর্জন’ ও ‘বিজয়া’। তবে এ যাত্রায় বাংলাদেশের দর্শকদের জন্য প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে ২০১৭ সালে নির্মিত পুরনো ছবি ‘বিসর্জন’। বিসর্জন ছবিটি ৬৪তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেছিল। অন্যদিকে আগামীকালই কলকাতায় মুক্তি পাবে নতুন ছবি ‘বিজয়া’। তবে জয়া আহসান ও বাংলাদেশ প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ টকিজকে নিশ্চিত করেছেন, চলতি মাসের শেষ দিকে ‘বিজয়া’ও মুক্তি দেয়া হবে এখানকার প্রেক্ষাগৃহে। বিজয়া ছবির মুক্তি উপলক্ষে জয়া বর্তমানে কলকাতায় অবস্থান করছেন।

বছরের শুরুতেই দুই দেশের প্রেক্ষাগৃহে নিজের ছবি নিয়ে হাজির হওয়ায় যথেষ্ট উচ্ছ্বসিত জয়া। তবে জয়া জানালেন, তার এ উচ্ছ্বাসের বড় কারণ নিজের দেশের প্রেক্ষাগৃহে শেষ পর্যন্ত বিসর্জন ছবিটির মুক্তি দেখতে পেরে। এ নিয়ে কলকাতা থেকে টকিজকে জয়া বলেন, ‘বিসর্জন আমার ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা ছবি। এ ছবির জন্য আমি অনেক কিছু পেয়েছি। আমি বরাবরই চেয়েছি ছবিটি আমার দেশের দর্শকরা দেখুক। শেষ পর্যন্ত এ সুযোগ আসায় আমি ভীষণ আনন্দিত।’

bishorjon

কলকাতার প্রেক্ষাগৃহে বিসর্জন মুক্তি পায় ২০১৭ সালের ১৪ এপ্রিল। ছবিটি ইউটিউবসহ বিভিন্ন প্লাটফর্মেও মুক্তি পেয়েছে। যে কারণে প্রশ্ন ওঠা স্বাভাবিক, পুরনো এ ছবি পুনরায় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির যৌক্তিকতা কী? এ নিয়ে জয়ার উত্তর: ‘কৌশিক গাঙ্গুলী নির্মিত এ ছবিটি ভারতে তৈরি ছবি হলেও এর গল্পের বেশির ভাগটা কিন্তু বাংলাদেশ প্রসঙ্গে। এমনকি এর চরিত্রগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশের সংশ্লিষ্টতা বেশি। ছবিটি হয়তো এতদিনে অনেকেই বিভিন্ন মাধ্যমে দেখেছেন। কিন্তু তার পরও আমি বলব, সবাইকে হলে গিয়ে ছবিটি দেখতে। কারণ এটি আসলে হলের উপযোগী করে নির্মিত।’ এছাড়া ‘বিসর্জন ছবিতে অভিনয় করে আমি জিও ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডসহ ভারতের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছি। এ কারণেও আমার ভক্তদের অনুরোধ করব, পুনরায় প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে ছবিটি দেখতে।

মধুমিতা, বলাকা, শ্যামলী, বসুন্ধরা স্টার সিনেপ্লেক্স ও চট্টগ্রামের সিলভার স্ক্রিন— এ পাঁচ প্রেক্ষাগৃহে বিসর্জন মুক্তি পাবে। এরপর দর্শক বাড়ার পরিপ্রেক্ষিতে হলের সংখ্যা আরো বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ও মধুমিতা হলের কর্ণধার ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ। এ নিয়ে টকিজকে তিনি বলেন, ‘জয়া আহসান দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী। বিসর্জনের পর এ মাসের শেষ দিকে তার অভিনীত নতুন ছবি ‘বিজয়া’ মুক্তির বিষয়টি চূড়ান্ত হয়েছে। এ দুটি ছবি আমার আমদানি করা প্রথম ছবি। আশা করি, দর্শক তা গ্রহণ করবে।’

উল্লেখ্য, ‘বিসর্জন’ ছবির গল্প যেখানে শেষ হয়েছিল, সেখান থেকেই শুরু নতুন ছবি ‘বিজয়া’র গল্প। এ ছবিতে জয়ার বিপরীতে অভিনয় করেছেন আবির চট্টোপাধ্যায়।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ৪:১০ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৩ জানুয়ারি ২০১৯

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।