শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দেশে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি: বিডা চেয়ারম্যান

  |   সোমবার, ২১ জানুয়ারি ২০১৯   |   প্রিন্ট   |   741 বার পঠিত

দেশে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি: বিডা চেয়ারম্যান

বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) চেয়ারম্যান কাজী এম আমিনুল ইসলাম বলেছেন, আগামী ২০৪১ সালের মধ্যে দেশ উন্নত দেশে পরিণত হওয়ার লক্ষ্য নিয়ে এগুচ্ছে। এ সময় দেশের উন্নয়নে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি। রবিবার (২০ জানুয়ারি) রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে লুব-রেফ (বাংলাদেশ) লিমিটেড আয়োজিত `বাংলাদেশের লুব্রিক্যান্ট এবং বিদ্যুৎ খাতে সাশ্রয়ী ও পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি’ বিষয়ক সেমিনারে দুটি প্রযুক্তির উদ্বোধন করে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

ন্যানো ও নিনাস নামের পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি দুটি বাজারে এনেছে লুব-রেফ (বাংলাদেশ) লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটি দাবি করেছে, ন্যানো ও নিনাস নামের পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি দুটি যথাক্রমে ট্রান্সফার্মার ও ইঞ্জিনের কার্যক্ষমতা বাড়াতে সক্ষম। এ প্রযুক্তির ব্যবহার বাংলাদেশে এটিই প্রথম বলে দাবি করছেন উদ্যোক্তারা। বিএনও ব্র্যান্ড বাজারজাত করা এ কোম্পানিটি সুইডেনের ট্রান্সফরমার তেল প্রযুক্তি ‘নিনাস’ এবং ফিনল্যান্ড থেকে ‘ন্যানো’ প্রযুক্তি ইঞ্জিন লুব্রিক্যান্টস চালু করেছে।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন সুইডেনের রাষ্ট্রদূত চারলোটা স্কালাইটার, বুয়েটের কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ইজাজ হোসাইন। লুব-রেফ (বাংলাদেশ) লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ ইউসুফের সভাপতিত্বে সেমিনারে এ খাতের বিভিন্ন পর্যায়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বিডার চেয়ারম্যান বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতির ক্রমেই বিকাশ হচ্ছে। ২০৪১ সালের মধ্যে এ দেশ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে। এর জন্য সবচেয়ে বেশি যেটা প্রয়োজন সেটা হচ্ছে পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তির। আশা করছি লুব-রেফ বাংলাদেশ যে নতুন প্রযুক্তি এনেছে তা অর্থনৈতিক উন্নয়নে সহযোগিতা করবে।

বর্তমানে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন ২০ হাজার মেগাওয়াট ছাড়িয়েছে উল্লেখ করে আমিনুল ইসলাম বলেন, বিদ্যুতের ক্রমবর্ধমান উৎপাদন ও চাহিদা বৃদ্ধিও কারণে এই সংক্রান্ত লুব অয়েলের চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে। দেশের অর্থনীতির বিকাশের কারণে যে কোনও ধরনের পণ্যের চাহিদাও বৃদ্ধি পায়। লুব অয়েল তাদের ন্যায় একটি।

ন্যানো-টেকনোলজিতে উৎপাদিত লুব্রিকেন্টস ব্যবহারে ইঞ্জিনের পারফরম্যান্স বৃদ্ধি, ৫ শতাংশেরও বেশি তেল খরচ হ্রাস এবং পরিবেশের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব কমাতে সাহায্য করবে বলে দাবি প্রতিষ্ঠানটির। পাশাপাশি নিনাস নামের লুব্রিকেন্ট উৎপাদন করা হচ্ছে ট্রান্সফরমারে ব্যবহারের জন্য। একটানা ৫০ থেকে ৬০ বছর ব্যবহারের পর শোধনের মাধ্যমে ১০০ ভাগ তেলই আবারও ব্যবহারের উপযোগী করা সম্ভব বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।

লুব-রেফ (বাংলাদেশ) লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ ইউসুফ বলেন, দেশে শিল্প কারখানা স্থাপনের হার বাড়ছে। তাই এই খাতের চাহিদার কথা বিবেচনা করে নতুন প্রযুক্তি দুটি নিয়ে এসেছি। এটি পরিবেশবান্ধব ও সাশ্রয়ী, যা ৫০ বছর পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে। এটি নবায়নযোগ্য বলেও তিনি জানান।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ১২:৩৭ অপরাহ্ণ | সোমবার, ২১ জানুয়ারি ২০১৯

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

রডের দাম বাড়ছে
(11110 বার পঠিত)

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।