• পরিবেশদূষণ ঘটাচ্ছে রিকন্ডিশন্ড গাড়ি

    বিবিএনিউজ.নেট | ০১ ডিসেম্বর ২০১৯ | ১০:৩৭ পূর্বাহ্ণ

    পরিবেশদূষণ ঘটাচ্ছে রিকন্ডিশন্ড গাড়ি
    apps

    ‘আমাদের রাস্তায় আমাদের গাড়ি, থাকবে সবার বাড়ি বাড়ি’- স্লোগানে চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি কনভেনশন সেন্টারে তৃতীয়বারের মতো শুরু হয়েছে ‘পিএইচপি মোটর ফেস্ট’। ফেস্ট চলবে আগামীকাল শনিবার পর্যন্ত। গতকাল দুপুরে ফেস্টের উদ্বোধন করেন পিএইচপি ফ্যামিলির চেয়ারম্যান সূফী মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। ফেস্টে ‘পিএইচপি কমান্ডো’ ও ‘পিএইচপি থান্ডার বার্ড’ নামে দুটি নতুন ব্র্যান্ডের মোটরসাইকেল বিক্রির কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়।

    সূফী মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, লাখো শহীদের রক্তে কেনা স্বাধীন দেশের মানুষ আর কতদিন বিদেশি গাড়ি ব্যবহার করবে- সেই প্রশ্ন জাতির কাছে রাখলাম। পাশের দেশ ভারতেও সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি সাধারণ জনগণ দেশি গাড়ি ব্যবহার করছে। এতে মূল্যবান বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় হচ্ছে। আমাদের কষ্টে অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয়ে দেশে তৈরি গাড়ি ব্যবহার করা উচিত। পুরনো গাড়ির ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, পুরনো গাড়ির ব্যবসা বাদ দিয়ে নতুন গাড়ির ব্যবসা শুরু করেন। আমরাই পাঁচ বছরের গ্যারান্টি ও ওয়্যারেন্টি দিচ্ছি; যন্ত্রাংশও পাওয়া যাবে সহজে।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    যেসব গাড়ি পরিবেশবান্ধব নয়, সেগুলো বাংলাদেশে পাঠানো হচ্ছে- মন্তব্য করে সূফী মিজানুর রহমান বলেন, বাংলাদেশে পিএইচপি সর্বপ্রথম গাড়ি তৈরি করছে। সাশ্রয়ী মূল্যে আমরা নতুন গাড়ি দিচ্ছি। পৃথিবীর ইতিহাসে বাংলাদেশ অনেক বিস্ময়কর অবদান রেখেছে। একদিন আমরা বিএমডব্লিউ সমমানের গাড়ি উৎপাদন করব ইনশাআল্লাহ।

    পিএইচপি মোটর মালয়েশিয়ার বিখ্যাত ব্র্যান্ড প্রোটন গাড়ি তৈরি করছে। ১৪ লাখ ৯৯ হাজার টাকায় ব্র্যান্ড নিউ এসব গাড়ি কিনতে পারছেন গ্রাহক। বাংলাদেশে নিযুক্ত মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রদূত আমির ফরিদ আবু হাসান বলেন, মালয়েশিয়ায় প্রোটনের অবদান জিডিপির ৪ শতাংশ। পিএইচপি তাদের মোটর কারখানায় আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে গাড়ির কোয়ালিটি ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করছে। এমন অত্যাধুনিক কারখানা দেখে আমি সত্যিই অভিভূত।


    পিএইচপি ফ্যামিলির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মহসিন বলেন, আগামী প্রজন্মকে দূষণমুক্ত উন্নত পরিবেশ দিতে হলে রিকন্ডিশন্ড গাড়ির ব্যবহার কমাতে হবে।

    পিএইচপি মোটরের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আকতার পারভেজ বলেন, মোটর ফেস্টের পরিসর ধীরে ধীরে বাড়ছে। আগামীতে আরও বড় হবে। একদিন আমরা হয়তো জেনেভা মোটর ফেস্টিভ্যাল বা দিল্লি ফেস্টিভ্যালের মতো আয়োজন করতে পারব। বন্দরনগরী চট্টগ্রামে এ ধরনের ফেস্ট আরও বেশি হওয়া প্রয়োজন।

    উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর মো. মোর্শেদ আলম, শেঠ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোলায়মান আলম শেঠ, পিএইচপি অটোমোবাইলের নির্বাহী পরিচালক তাসির করিম, জেনালেল ইলেকট্রনিক্সের জিএম এআর শামীম উদ্দিন, মাসুদর রহমান, ইউজার্ডের সিইও আরিফুজ্জামান রাসেল, দারাজের ইবতেসাম ইসলাম ও পাঠাওয়ের মোহাম্মদ ইশফাক চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

    নিজের দেশে তৈরি গাড়ি ব্যবহারের প্রতি তাগিদ দিয়ে বক্তারা বলেন, জাপানের টয়োটা ব্র্যান্ডে আমরা অন্ধ; কিন্তু পিএইচপি একটি ব্র্যান্ড। বেসরকারি খাতে গাড়ি তৈরির প্রথম প্রকল্প পিএইচপির। পিএইচপি মানে কোয়ালিটি, কম দামে ভালো জিনিস। জনগণের কাছে এই আস্থা আছে।

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ১০:৩৭ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০১৯

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    রডের দাম বাড়ছে

    ১৩ জানুয়ারি ২০১৯

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি