মঙ্গলবার ২৮ মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পুঁজিবাজারের বিশেষ তহবিলের সুদহার কমেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০   |   প্রিন্ট   |   275 বার পঠিত

পুঁজিবাজারের বিশেষ তহবিলের সুদহার কমেছে

পুঁজিবাজারের স্থিতিশীলতায় বিশেষ তহবিল গঠনের নির্দেশ দিয়েছিলো বাংলাদেশ ব্যাংক। এই তহবিলের সুদহার আগের থেকে কমানো হয়েছে। সম্প্রতি এ সংক্রান্ত একটি আদেশ জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।
পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের উদ্দেশ্যে বিশেষ তহবিল গঠন এবং বিনিয়োগের নীতিমালা উপর্যুক্ত বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক গত ১০ ফেব্রুয়ারি জারিকৃত ডিওএস সার্কুলারের নং-০১ এর মাধ্যমে তফসিলি ব্যাংকসমূহ কর্তৃক পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের উদ্দেশ্যে বিশেষ তহবিল গঠন এবং ওই তহবিল হতে বিনিয়োগের বিষয়ে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।
এছাড়া বর্তমানে মুদ্রা বাজারের পরিবর্তিত পরিস্থিতির সাথে সামঞ্জস্যতা বিধান করার জন্য উল্লিখিত সার্কুলারটির কতিপয় নির্দেশনার বিষয়ে নিম্নোক্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে-
ক) বিশেষ তহবিল গঠনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক হতে রেপো সুবিধার মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহের ক্ষেত্রে ডিওএস সার্কুলার নং-০১/২০২০ এর ১(গ) নং অনুচ্ছেদে বর্ণিত সুদ হার ৫ শতাংশের স্থলে ৪.৭৫ শতাংশ হবে।
খ) ওই সার্কুলারের ২(ঙ)(৩) নং অনুচ্ছেদ নিম্নোক্তভাবে প্রতিস্থাপিত হবে-
তালিকাভুক্ত কর্পোরেট বন্ড/ডিবেঞ্চারের ক্ষেত্রে ফিক্সড রেট ন্যূনতম ১০ শতাংশ কুপন/সুদবাহী হতে হবে।
ভেরিয়েবল রেট হবে ন্যূনতম সুদের হার কুপন প্রদানের মাসের অব্যবহিত পূর্বে সমাপ্ত মাসে বিদ্যমান সর্বশেষ ইস্যুকৃত (১০ বছর মেয়াদি ট্রেজারি বন্ডের সুদ হার + ১.০০%) এর কম হতে পারবে না।
এছাড়াও যেকোন মেয়াদের সরকারি বন্ড বা বিল, সম্পদভিত্তিক বন্ড/সুকুক এর ক্ষেত্রে-
ফিক্সড রেট ন্যূনতম ৮ শতাংশ কুপন/মুনাফাবাহী হতে হবে।
ভেরিয়েবল রেট হবে ন্যূনতম মুনাফা বা সুদের হার কুপন প্রদানের মাসের অব্যবহিত পূর্বে সমাপ্ত মাসে বিদ্যমান সর্বশেষ ইস্যুকৃত (১০ বছর মেয়াদি ট্রেজারি বন্ডের সুদ হার + ০.৫০%) এর কম নয়।
এ নির্দেশনা অবিলম্বে কার্যকর হবে। ডিওএস সার্কুলার নং-০১/২০২০ এর অন্যান্য নির্দেশনা অপরিবর্তিত থাকবে। তবে ওই সার্কুলারের অধীনে চলমান রেপো সমূহের মেয়াদপূর্তিতে নতুন হার কার্যকর হবে।
এদিকে, বেশ কয়েকটি ব্যাংক তহবিল গঠনে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ও সংশ্নিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে।
ব্যাংকগুলোর মধ্যে রাষ্ট্রীয় মালিকানার সোনালী ও অগ্রণী ব্যাংক, বেসরকারি খাতের ঢাকা ব্যাংক, দি সিটি ব্যাংক, আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক, শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংক, এনআরবি কমার্শিয়াল ও ইবিএল আনুষ্ঠানিকতা শুরু করেছে বলে জানা গেছে। এর বাইরেও আরও দুটি ব্যাংক এ বিষয়ে কাজ করছে। এগুলোর মধ্যে কোনো কোনো ব্যাংক বিও অ্যাকাউন্ট খুলেছে বলে জানা গেছে।
কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্র জানিয়েছে, বিশেষ তহবিল গঠনের বিষয়ে খুঁটিনাটি জানতে বেশ কিছু ব্যাংক যোগাযোগ করলেও কেউ এখন পর্যন্ত তহবিলের জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে আবেদন করেনি। কয়েকটি ব্যাংক এখন নিজস্ব তহবিল থেকে বিনিয়োগ করছে বলে জানিয়েছে। তহবিল গঠনের শর্ত অনুযায়ী, পৃথক ব্যাংক এবং বিও অ্যাকাউন্ট খুলেছে বলে অনানুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ ব্যাংককে জানিয়েছে।

 

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ৬:২৮ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।