• পুঁজিবাজারে সূচক পতনে লেনদেন শেষ

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ৩:৪৪ অপরাহ্ণ

    পুঁজিবাজারে সূচক পতনে লেনদেন শেষ
    apps

    টানা তিন কার্যদিবস উত্থানের পর এবার সূচক পতনের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে দেশের উভয় পুঁজিবাজারের লেনদেন। তবে সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে আগের কার্যদিবসের তুলনায় বেড়েছে লেনদেন। কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম।

    সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় লেনদেন শুরু হওয়ার পর দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক সামান্য বৃদ্ধি পায়। তবে কয়েক মিনিটের ব্যবধানে তা আগের কার্যদিবসের তুলনায় নিম্নমুখী হতে থাকে। যা দিনের লেনদেনের শেষ সময় পর্যন্ত অব্যাহত ছিলো।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    দিনশেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫১ দশমিক ৩০ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৭২৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস ইনডেক্স ১০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৩০৪ পয়েন্টে। আর ডিএসই-৩০ ইনডেক্স ১৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৯৮৭ পয়েন্টে।

    এদিন ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানির শেয়ারের মধ্যে দাম বেড়েছে ৬৮টির, কমেছে ২৪২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির। বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমলেও লেনদেন হয়েছে আটশ’ ৯১ কোটি টাকার কিছু বেশি। এর আগের কার্যদিবস লেনদেন হয় সাতশ’ ২৫ কোটি টাকার বেশি।


    অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) আগের কার্যদিবসের তুলনায় সূচক কমে লেনদেন শেষ হয়েছে। তবে ডিএসইর মতো এ বাজারেও বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ।

    সিএসইতে সার্বিক সূচক ১১৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান নিয়েছে ১৭ হাজার ৫৩৮ পয়েন্টে। আর সিএসসিএক্স সূচক ৭২ পয়েন্ট কমে ১০ হাজার ৬১২ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

    এ বাজারে লেনদেন হওয়া ২৬৯টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ৭১টির, কমেছে ১৭২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

    এদিনি সিএসইতে লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৪ কোটি ৪৫ লাখ ১৪ হাজার টাকা। এর আগের কার্যদিবসে লেনদেনের পরিমাণ ছিলো ৩১ কোটি ৪৯ লাখ ৯৬ হাজার টাকা।

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ৩:৪৪ অপরাহ্ণ | সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি