• প্রথম প্রান্তিকে রাজস্ব-গ্রাহক বেড়েছে গ্রামীণফোনের

    বিবিএনিউজ.নেট | ২৭ এপ্রিল ২০১৯ | ১১:৩৯ পূর্বাহ্ণ

    প্রথম প্রান্তিকে রাজস্ব-গ্রাহক বেড়েছে গ্রামীণফোনের
    apps

    প্চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে গ্রামীণফোন ৩ হাজার ৪৯০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করেছে।
    গত বছরের একই সময়ের তুলনায় রাজস্ব আয়ে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১১ দশমিক ৬ শতাংশ।
    প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) গ্রামীণফোনের গ্রাহক সংখ্যা বেড়েছে ৯ দশমিক ৮ শতাংশ।

    ২০১৯ সালের প্রথম প্রান্তিকে আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় গ্রামীণফোন।
    ২০১৯ সালের জানুয়ারি-মার্চে ১৩ লাখ গ্রাহক গ্রামীণফোনের নেটওয়ার্কে যোগ দিয়েছে যা ২০১৮ সালের শেষ তিন মাসের (অক্টোবর-ডিসেম্বর) তুলনায় এক দশমিক ৮ শতাংশ বেশি।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    প্রথম প্রান্তিকে প্রতিষ্ঠানটি ১১ লাখ ইন্টারনেট গ্রাহক অধিগ্রহণ করেছে। গ্রামীণফোনের মোট গ্রাহকের মধ্যে ৫১ দশমিক৬ শতাংশ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে।
    গ্রামীণফোনের সিইও মাইকেল ফোলি বলেন, নিয়ন্ত্রণমূলক কিছু চ্যালেঞ্জ থাকা সত্তে¡ও প্রথম প্রান্তিকে আমরা বেশ ভালো ব্যবসায়িক সাফল্য অর্জন করেছি। বাজার ব্যবস্থায় আমাদের শক্তিশালী অবস্থান বিদ্যমান এবং নতুন নতুন উদ্ভাবন দিয়ে আমরা উল্লেখযোগ্য পরিমাণ ফোরজি গ্রাহক নিতে পেরেছি। প্রথম প্রান্তিকে ভয়েস এবং ইন্টারনেট থেকে ভালো প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছি।” এই অগ্রগতি অব্যাহত রাখার আশাও প্রকাশ করেন তিনি।

    একনজরে প্রথম প্রান্তিক:
    * ৩৪৯০ কোটি টাকা রাজস্ব অর্জন, যা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ১১ দশমিক ৩ শতাংশ বেশি।
    * মোট গ্রাহকের সংখ্যা ৭ কোটি ৪০ লাখ, মোট গ্রাহকের মধ্যে ৩ কোটি ৮২ লাখ ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন
    * কর পরবর্তী লাভ ৮৯০ কোটি টাকা। ২৫ দশমিক ৬ শতাংশ মার্জিন । ইপিএস ৬ দশমিক ৬১ টাকা ।
    * নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ ও আধুনিকায়নে ৪ হাজার ২০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ
    * সরকারি কোষাগারে ২ হাজার ৩০ কোটি বা মোট রাজস্বের ৫৮ দশমিক ১ শতাংশ প্রদান


    গ্রামীণফোনের চিফ ফিন্যান্সিয়াল অভিসার কার্ল এরিক ব্রোতেন বলেন, “গ্রাহকদের মানসম্মত সেবা দিতে নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণে আমরা আমাদের বিনিয়োগ অব্যাহত রাখবে। ভবিষ্যতে গ্রামীণফোনের লাভজনক প্রবৃদ্ধির বিষয়ে আমরা আশাবাদী।”
    নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ ও আধুনিকায়নে প্রথম প্রান্তিকে গ্রামীণফোন ৪২০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে। আধুনিকায়নের পাশাপাশি এ সময়ে গ্রামীণফোন দেশের বিভিন্ন স্থানে ৯২৬টি নতুন ফোরজি সাইট স্থাপন করছে। বর্তমানে গ্রামীণফোনে মোট নেটওয়ার্ক সাইটের সংখ্যা ১৫ হাজার ৯৩৯টি।
    গ্রামীণফোন প্রথম প্রান্তিকে কর, ভ্যাট, ফি, ফোরজির লাইসেন্স ও স্পেকট্রাম এ ফি বাবদ ২ হাজার ৩০ কোটি টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দিয়েছে যা একই সময়ে অর্জিত রাজস্বের ৫৮ দশমিক ১ শতাংশ।

    গত ২৩ এপ্রিল গ্রামীণফোনের ২২তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অন্যান্য বিষয়ের পাশাপাশি সভায় শেয়ারহোল্ডাররা ২০১৮ সালের জন্য ২৮০ শতাংশ (১২৫ শতাংশ অন্তর্র্বর্তীকালীন নগদ লভ্যাংশসহ) লভ্যাংশ অনুমোদন দিয়েছে।

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ১১:৩৯ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৯

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি