শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে বিনিয়োগে উচ্চ রিটার্নের নিশ্চয়তা রয়েছে: বিএসইসি চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১   |   প্রিন্ট   |   198 বার পঠিত

বাংলাদেশে বিনিয়োগে উচ্চ রিটার্নের নিশ্চয়তা রয়েছে: বিএসইসি চেয়ারম্যান

বাংলাদেশে ব্যবসার সুন্দর পরিবেশ রয়েছে, বাংলাদেশ বিনিয়োগকারীদের জন্য বিনিয়োগের সুন্দর পরিবেশ নিয়ে অপেক্ষা করছে। আসুন বাংলাদেশে বিনিয়োগ করুন। এখানে বিনিয়োগ করে উচ্চ হারে রিটার্নের নিশ্চয়তা রয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম।

সোমবার বিশ্বের তথ্য প্রযুক্তির রাজধানী খ্যাত ক্যালিফোর্নিয়ার সান ফ্রান্সিসকোর স্থানীয় সময় বিকাল সাড়ে ৫টায় (বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট সকাল সাড়ে ৬টা) হায়াত রিজেন্সি সান্তা ক্লারা হোটেলের বলরুমে রোড শো’র উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় রোড শোতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি খাত বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান।

বিএসইসির চেয়ারম্যান বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। শিক্ষিত, অর্ধশিক্ষিত শ্রমশক্তি আমাদের অর্থনীতির প্রবৃদ্ধিকে এগিয়ে নিতে সহযোগিতা করছে। বাংলাদেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা রয়েছে, গতিশীল অর্থনীতি, বিশেষ করে শেয়ারবাজার গতিশীল। তাছাড়া বাংলাদেশে দিন দিন রিজার্ভে রেকর্ড গড়ছে। যা দিয়ে ১০ মাসের আমদানি ব্যয় মেটানো সম্ভব হবে।

অধ্যাপক রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের আর্থিক খাতের পাশাপাশি শেয়ার মার্কেটে শক্তিশালী গভর্নেন্স পরিপালন করা হয়। শেয়ার মার্কেটের তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোকে নিয়মিত মনিটরিং করার মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের অর্থের সুরক্ষা নিশ্চিত করা হয়। নিটা অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে প্রবাসী ও বিদেশি বিনিয়োগকারীরা সহজে বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে পারে। এই অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে কোনো ধরনের অনুমোদন ছাড়াই খুব সহজে প্রবাসী ও বিদেশি বিনিয়োগকারীরা তাদের বিনিয়োগের অর্থ ও লভ্যাংশ ফেরত আনতে পারে।

বিএসইসি বলেন, বাংলাদেশের শেয়ার মার্কেটে বিগত দিনে বেশ সংস্কার করা হয়েছে। এর ফলে বাংলাদেশে বিনিয়োগ করে নিশ্চিত রিটার্ন পাওয়া সম্ভব। শেয়ার মার্কেট নতুন উচ্চতার দিকে যাচ্ছে দিনে দিনে। সূচক, লেনদেন, বাজার মূলধনে নতুন রেকর্ড গড়ছে। ফলে বাংলাদেশের শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করে উচ্চ হারে রিটার্নের নিশ্চয়তা রয়েছে।

তিনি বলেন, হংকং ভিত্তিক এশিয়ান ফন্ট্রিয়ার ক্যাপিটাল ফান্ডের মতে, বাংলাদেশের শেয়ারবাজার করোনাকালে ২০২০ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে এশিয়ার মধ্যে সেরা পারফর্ম করেছে। ঢাকার স্টক এক্সচেঞ্জে ডাবল ডিজিট প্রবৃদ্ধি হয়েছে। লেনদেন, সূচক এবং বাজার মূলধন বেড়ে দিন দিন রেকর্ড গড়ছে।

বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, বাংলাদেশের শেয়ার মার্কেট আধুনিকতার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে স্মল ক্যাপ বোর্ড, অল্টারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট বোর্ড, ভেঞ্চার ক্যাপিটাল, স্টার্ট আপ কোম্পানির জন্য তহবিল সংগ্রহের সুযোগ রয়েছে। এছাড়া বাংলাদেশের ই-কমার্স মার্কেট দিন দিন এগিয়ে যাচ্ছে। গ্লোবাল রেঙ্ক ৬ এ অবস্থান করছে বাংলাদেশের ই কমার্স মার্কেট।

আইসিটি খাতের উজ্জ্বল সম্ভাবনার কথা উল্লেখন করে তিনি বলেন, আইসিটি রপ্তানি খাত বর্তমানে এক বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে। বাংলাদেশের বিপুল জনসংখ্যাই এখন সম্পদ হিসেবে তৈরি হয়েছে। দেশটিতে মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা মোট ১৭০ মিলিয়ন এবং ইন্টারনেট ব্যাবহারকারীর সংখ্যা রয়েছে ১১২ মিলিয়ন। বাংলাদেশে প্রতি পাঁচজনের মধ্যে তিন জনের মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস (এমএফএস) একাউন্ট রয়েছে। এর মধ্যে প্রতি পাঁচ জনের একজন সক্রিয় থাকে। অপরদিকে বাংলাদেশের ই-কমার্স ২০২৩ সালে ৩ বিলিয়ন ডলারে যাওয়ার আশা করা হচ্ছে। এর পরিমাণ বর্তমানে রয়েছে ১ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলার। বিশ্বে বাংলাদেশের ই-কমার্স বাজারের অবস্থান ৪৬তম। দুই হাজার সাইট এবং ৫০ হাজার ফেসবুক পেইজ রয়েছে এগুলোর।

শিবলী রুবাইয়াত আরও বলেন, বাংলাদেশে প্রচুর সম্ভাবনা রয়েছে। বিশেষ করে যুবকদের জন্য অনেক সুযোগ রয়েছে। উদাহরণ হিসেবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কথা বলা যায়। আমাদের জাতীয় দল বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার চেষ্টা করে আসছে, কিন্ত পারছে না। তবে যুবা দল গত বছর বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। তাই বলতে চাই, বাংলাদেশে ব্যবসায়ের সকল সুযোগ রয়েছে। আপনার নিশ্চিন্তে এখানে বিনিয়োগ করতে পারেন।

রোড শোর শুরুতে সান্তা ক্লারার মেয়র লিসা এম. গিলমোর, সালমান এফ রহমান ও অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামকে মেয়রাল সার্টিফিকেট প্রদান করেন (মেয়রের পক্ষ থেকে স্বীকৃতি সনদ)। তারা মেয়রকে নকশি কাঁথা উপহার দেন।

পাশাপাশি মেয়র বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ক্রেস্ট দেন। ক্রেস্টটি প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছে দিতে সালমান এফ রহমানের হাতে সেটি তুলে দেন তিনি।

সান ফ্রান্সিসকোর রোড শোতে আরও উপস্থিত ছিলেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার, বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) নির্বাহী চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম, বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষের (বেপজা) নির্বাহী চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. নজরুল ইসলামসহ সরকারি বেসরকারি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ১১:৩৫ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।