সোমবার ২০ মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিতরন করা হয়নি তিন কোম্পানির ৩৫ কোটি টাকার লভ্যাংশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শনিবার, ১০ এপ্রিল ২০২১   |   প্রিন্ট   |   257 বার পঠিত

বিতরন করা হয়নি তিন কোম্পানির ৩৫ কোটি টাকার লভ্যাংশ

বিতরণ করা হয়নি পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত রাষ্ট্রায়াত্ব তিন কোম্পানির ৩৫ কোটি ৯ লাখ টাকার লভ্যাংশ। কোম্পানিগুলো হলো- পদ্মা ওয়েল, মেঘনা পেট্রোলিয়াম ও যমুনা অয়েল লিমিটেড। এসব কোম্পানির কাছে ২০১৮-১৯ হিসাব বছর পর্যন্ত অবণ্টিত লভ্যাংশ পড়ে রয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, সাধারণত কোম্পানির শেয়ার পোর্টফোলিওতে থাকলে বছর শেষে পাওয়া যায় ক্যাশ লভ্যাংশ বা স্টক লভ্যাংশ। কিন্তু বিও হিসাব নবায়ন না করা, ব্যাংকের হিসাব অকার্যকরসহ নানা কারণে অবণ্টিত থেকে যায় কোম্পানির লভ্যাংশ, যা “সাসপেন্ডেড” হিসেবে জমা থাকে কোম্পানির কাছে। এ ধরনের অবণ্টিত লভ্যাংশ জ্বালানি বিপণনকারী তিন কোম্পানির কাছে ২০১৮-১৯ অর্থবছর পর্যন্ত মোট ৩৫ কোটি ৯ লাখ ২৩ হাজার ৭৭৯ টাকা পড়ে আছে।

আগের হিসাব বছর (২০১৭-১৮) পর্যন্ত ছিল ২৫ কোটি ৭০ লাখ ৬২ হাজার ৫৬২ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে অদাবিকৃত দায় বেড়েছে ৯ কোটি ৩৮ লাখ ৬১ হাজার ২১৭ টাকা। সবচেয়ে বেশি পদ্মা অয়েল কোম্পানি লিমিটেডের কাছে অবণ্টিত লভ্যাংশ জমা আছে ১৬ কোটি ৬৬ লাখ ৬৩ হাজার। আর মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেডে ১১ কোটি ৩৩ লাখ ২৫ হাজার ৫৫০ টাকা ও যমুনা অয়েল কোম্পানি লিমিটেডে ৭ কোটি ১২ লাখ ৬০ হাজার ২২৯ টাকা। আগের ২০১৭-১৮ অর্থবছর পর্যন্ত ছিল পদ্মায় ১৪ কোটি ৮৩ লাখ ৮১ হাজার টাকা, মেঘনায় ৭ কোটি ৬০ লাখ ২৩ হাজার ৭৮১ টাকা এবং তিন কোটি ২৬ লাখ ৫৭ হাজার ৭৮১ টাকা অবণ্টিত ডিভিডেন্ড জমা ছিল।

এদিকে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) এক হিসাবে দেখা গেছে, ডিএসইর ২০৮টি ও সিএসইর ১২৭টি কোম্পানিসহ মোট ৩৩৫ কোম্পানির প্রায় ২১ হাজার কোটি টাকা ডিভিডেন্ড অবণ্টিত অবস্থায় আছে। টাকার অঙ্কে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর অবণ্টিত বোনাস ডিভিডেন্ডের পরিমাণ ১১ হাজার কোটি টাকা ও ক্যাশ ডিভিডেন্ডের পরিমাণ ৬৩৪ কোটি টাকা। একইভাবে সিএসইতে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে অবণ্টিত বোনাস ডিভিডেন্ডের পরিমাণ আট হাজার ৮৮১ কোটি টাকা ও ক্যাশ ডিভিডেন্ডের পরিমাণ ৩২১ কোটি টাকা। আর এমন অবণ্টিত ডিভিডেন্ড নিয়ে বিনিয়োগ সুরক্ষা ফান্ড গঠনে কাজ করছে বিএসইসি।

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে পুঁজিবাজারের কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের ডিভিডেন্ বিতরণ-সংক্রান্ত এক নির্দেশনা জারি করে। এতে বলা হয়, এখন থেকে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোনো প্রতিষ্ঠান ঘোষিত ডিভিডেন্ডের অবণ্টিত অর্থ ও শেয়ার তিন বছরের বেশি নিজেদের হেফাজতে রাখতে পারবে না। ঘোষিত ডিভিডেন্ডের দাবিদার খুঁজে না পেলে তিন বছর পর সেই অর্থ ও শেয়ার স্থানান্তর করতে হবে পুঁজিবাজার উন্নয়নে গঠিত বিশেষ তহবিলে।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ১২:২৪ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১০ এপ্রিল ২০২১

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।