• বীমার মাধ্যমে মানুষের জীবন ও সম্পদের ঝুঁকি গ্রহণের ব্যবস্থা সুদৃঢ় করা প্রয়োজন : নাসির উদ্দিন আহমেদ পাভেল প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট, বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশন ভাইস চেয়ারম্যান, মেঘনা লাইফ ও কর্ণফুলী ইন্স্যুরেন্স

    | ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ১:৫১ অপরাহ্ণ

    বীমার মাধ্যমে মানুষের জীবন ও সম্পদের ঝুঁকি গ্রহণের ব্যবস্থা সুদৃঢ় করা প্রয়োজন : নাসির উদ্দিন আহমেদ পাভেল প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট, বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশন ভাইস চেয়ারম্যান, মেঘনা লাইফ ও কর্ণফুলী ইন্স্যুরেন্স
    apps

    মোটরযান বীমার অ্যাক্ট লায়াবিলিটি ইন্স্যুরেন্স বাতিল হওয়ায় বীমাখাতে নেতিবাচক প্রভাব সম্পর্কে বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিআইএ) প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট নাসির উদ্দিন আহমেদ পাভেল বলেন, যখন একটি চলমান প্রোডাক্ট বাতিল করা হয় তখন তার প্রভাব পুরো সেক্টরেই পড়ে। তবে আমরা অ্যাসোসিয়েশন ও বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ মিলে চেষ্টা করে যাচ্ছি, যতো দ্রুত সম্ভব মোটর বীমায় যুগোপযোগী প্রোডাক্ট বাজারে আনতে। সেটা সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সম্ভব হবে।

    থার্ড পার্টি ইন্স্যুরেন্স সম্পর্কে তিনি বলেন, প্রতিবেশী দেশসহ পৃথিবীর সকল উন্নত দেশে মোটরযানে থার্ড পার্টি ইন্স্যুরেন্স বা দায় বীমা বাধ্যতামূলক। তবে বর্তমানে আমাদের দেশে দায় বীমা নেই। আমি মনে করি, যেখানে ২০৪১ সালকে সামনে রেখে দেশ ক্রমান্বয়ে উন্নতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, সেখানে যদি মানুষের জীবন ও সম্পদের ঝুঁকি গ্রহণের ব্যবস্থা সুদৃঢ় করা না হয় তবে দেশে অনেক পিছিয়ে পড়বে। তাই মোটরযানের তৃতীয়পক্ষের ঝুঁকিসহ সার্বিক বীমা ঝুঁকি ব্যবস্থা পুনরায় চালু করতে প্রয়োজনে সড়ক পরিবহন আইনের সংশ্লিষ্ট ধারা-উপধারা সংশোধনের উদ্যোগ নিতে হবে।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    থার্ড পার্টি ইন্স্যুরেন্সের গুরুত্ব বুঝাতে গিয়ে তিনি বলেন, আমাদের দেশে বছরে গড়ে সড়ক দুর্ঘটনায় ৫ হাজার ৬০০ মানুষ মারা যায়। বীমা কাভারেজ না থাকার কারণে তাদের পরিবার ন্যূনতম ক্ষতিপূরণ পায় না। এছাড়া দুর্ঘটনায় যারা পঙ্গু হয় তারাও কোনো ক্ষতিপূরণ পাচ্ছে না। যথাযথ বীমা থাকলে সেই বীমা থেকে তারা ক্ষতিপূরণ পেতে পারতো। বর্তমানে সড়ক পরিবহন আইনে তৃতীয়পক্ষের ঝুঁকি বীমা না থাকায় সাধারণ জনগণ আর্থিক নিরাপত্তা পাচ্ছে না। তাই দেশে মোটরযান বীমা বাধ্যতামূলক করা প্রয়োজন মানুষ যেন আর্থিক নিরাপত্তা কিছুটা হলেও পুষিয়ে নিতে পারে সেই দিকে দৃষ্টি রেখে এই বীমাকে বাধ্যতামূলক করা প্রয়োজন।

    কমপ্রিহেনসিভ ইন্স্যুরেন্স বাধ্যতামূলক করার বিষয়ে তিনি বলেন, যেহেতু ৬০(২) ধারায় গাড়ি মালিকের প্রতি ‘যথানিয়মে বীমা করবেন’ বলে নির্দেশনা রয়েছে তাই এটা বাধ্যতামূলক। তবে বিষয়টি আরো স্বচ্ছ করা প্রয়োজন। তিনি বলেন, মোটর বীমায় সাধারণ দু’ধরনের পলিসি চালু ছিলো। একটি হলো কমপ্রিহেনসিভ বা বিস্তৃত পরিসরের পলিসি এবং আরেকটি হলো শুধু তৃতীয় পক্ষের বীমা পলিসি বা অ্যাক্ট লায়াবিলিটি। সড়ক পরিবহন আইনে তৃতীয়পক্ষের বীমা পলিসির আইনি বাধ্যবাদকতা উঠিয়ে দেয়ায় সেটা বন্ধ রয়েছে। তবে আমরা অ্যাসোসিয়েশন ও আইডিআরএ পক্ষ থেকে বাজারে একটি নতুন পলিসি আনার বিষয়ে কাজ করে যাচ্ছি। যে পলিসির মাধ্যমে সকলেই যাতে উপকৃত হয়।


    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ১:৫১ অপরাহ্ণ | রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি