• অবাধ তথ্য প্রবাহে কোনো বাধা নেই

    বীমা গ্রাহকদের স্বার্থ দেখাই আমার প্রথম কাজ :আইডিআরএ চেয়ারম্যান

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ০২ জুলাই ২০২২ | ৬:৩৭ অপরাহ্ণ

    বীমা গ্রাহকদের স্বার্থ দেখাই আমার প্রথম কাজ :আইডিআরএ চেয়ারম্যান
    apps

    বীমা গ্রাহকদের স্বার্থ দেখাই আমার প্রথম কাজ। যাতে এ খাতে মানুষের আস্থা ফিরে আসে। পাশাপাশি অবাধ তথ্য প্রবাহের ক্ষেত্রেও কোন বাধা দেয়া হবে না। এটা নিয়মতান্ত্রিকভাবেই চলবে। বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের (আইডিআরএ) নতুন চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জয়নুল বারীর সাথে বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) গণমাধ্যম কর্মীদের সৌজন্য সাক্ষাৎকালে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় ‘ইকোনমিক মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশন, ইন্স্যুরেন্স রিপোর্টার্স ফোরামের প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

    মোহাম্মদ জয়নুল বারী বলেন, আমি আইডিআরএ’র নতুন দায়িত্বভার গ্রহণ করেছি। এখনো অনেকের সাথে কথা বলা হয়নি। এ খাতে যারা জড়িত সবার সাথে কথা বলবো। যে উদ্দেশ্যে সরকার নিয়ন্ত্রক সংস্থা গঠন করেছে, তার কতটুকু বাস্তবায়ন হয়েছে আর কতটুকু বাকি আছে সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। আইডিআরএ প্রতিষ্ঠার পর কিছু রুলস এবং রেগুলেশনের কাজ ভালো হয়েছে। এগুলো বাস্তবায়নের জন্য কিছু সংশোধন পরিমার্জন, ও যুগোপযোগী করা দরকার। যেটা নিয়মিতই চলবে। কিছু বিষয় প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। কিছু প্রকল্প রয়েছে সেগুলো নিয়ে কাজ হচ্ছে। বাস্তবায়ন যদিও কিছুটা পিছিয়ে আছে। সব মিলিয়ে বলবো এখানে কাজ করার প্রচুর জায়গা আছে।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    এখানে সাধারণ মানুষের স্বার্থ জড়িত। এ খাতে কিছু অসমতা আছে, কিছু কিছু ক্ষেত্রে ভুল ত্রুটি আছে। যেগুলো সকল সেক্টরেই থাকে। তবে এ খাত নিয়ে সরকার খুবই উদগ্রীব। সরকার চাচ্ছে এ খাতের যে সম্ভাবনা আছে, সহায়তার মাধ্যেমে সমন্বয় করে আরো এগিয়ে নিতে। আমি সেই লক্ষ্যেই কাজ করবো আশা করছি। এক্ষেত্রে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন । যারা স্টেক হোল্ডার আছেন, তাদের সবাইকে নিয়ে ভালো কিছু করবো আশা করি। আপনারা যারা মিডিয়ায় আছেন, তারা ভালো কাজগুলো তুলে ধরবেন। একটি বিষয় আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই, তথ্য প্রবাহের ক্ষেত্রে আমি কোন বাধা দিবো না। এটা নিয়মতান্ত্রিকভাবেই হবে। যে তথ্য আপনাদের দেয়ার মতো সেগুলো আপনাদের দিবো, এখানে লুকোচুরির কিছু থাকবে না। আপনাদের সাথে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক রেখে চলতে পারবো এটাই আমার বিশ্বাস।

    সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে আইডিআরএ’র চেয়ারম্যান বলেন, আমরা আগামী দুই-তিন মাসের মধ্যে তিন বছর মেয়াদি একটি পরিকল্পন করবো। এর মধ্যে বিভিন্ন মেয়াদের কাজ থাকবে। কোনোটা করতে এক মাস, কোনোটা করতে ছয় মাস, আবার কোনোটা করতে এক বছর সময় লাগবে। এ রকম পরিকল্পনার উদ্যোগ নিয়েছি। এছাড়া, বীমা গ্রাহকদের স্বার্থ দেখাই আমার প্রথম কাজ। এর মাধ্যমে এ খাতে মানুষের আস্থা ফিরে আসবে। মানুষ যদি বীমা করে সুফল পায়, তাহলে একজনের দেখাদেখি আরও ১০ জন আসবে। একজন প্রতারিত হলে আরো ১০ জনকে প্রভাবিত করবে। এ কারণে বীমা গ্রাহককে বুঝিয়ে দিতে হবে আমরা তাদের স্বার্থ দেখছি। সে জন্য আমরা দৃশ্যমান কিছু ব্যবস্থা নেব। ব্যাংকিং সেক্টরের মতো বীমা সেক্টরকেও ডিজিটালাইজড করতে চাই। ব্যাংকে টাকা জমা দিলে যেমন বোঝা যায় আপনার টাকা জমা হয়েছে, এসএমএস পান, ব্যাংক স্টেটমেন্ট নিয়ে দেখতে পারেন। অনলাইনে আপনি দেখতে পারেন আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের কি অবস্থা। এ রকম বীমাখাতেও আমরা ডিজিটালাইজেশন করতে চাই। এ কাজ ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে। আমরা চাইবো ব্যাংকিং সিস্টেমের মতো বীমা খাতকেও অনলাইন সিস্টেমের দিকে নিয়ে যেতে।


    আইডিআরএ’র চেয়ারম্যান জয়নুল বারী আরও বলেন, বীমা খাতে আইন আছে কিন্তু সেই আইনের সঠিক বাস্তবায়ন নেই। আমি চেষ্টা করবো যাতে আইনের সঠিক বাস্তবায়ন নিশ্চিত করা যায়। সেটা করা হবে সবাইকে নিয়ে, যারা আমাদের স্টেক হোল্ডার আছেন। নিয়ন্ত্রণ মানে এই না আমরা সবকিছু চাপিয়ে দেবো। সবাইকে নিয়ে সবার সুবিধা-অসুবিধা দেখেই করবো। নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে যেন উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত না হয়, সেটি আমাদের দেখতে হবে। একটি প্রাইভেট খাত তো প্রফিটের জন্য কাজ করে। প্রাইভেট খাত ও গভর্নমেন্টের উদ্দেশ্য এক না। সুতরাং প্রাইভেট খাতের বিষয়টিও আমাদের দেখতে হবে। সবার সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে, সবার মতামত নিয়েই আমরা কাজ করব। এছাড়া, ইন্স্যুরেন্স সেক্টর ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টের মেয়াদ আরো বাড়াতে বিশ্বব্যাংক ইতিমধ্যে সম্মত হয়েছে পাশাপাশি প্রয়োজনে আরো নতুন প্রকল্প নিয়ে কাজ করা হবে বলে জানান তিনি। এছাড়া ব্যাংকাসুরেন্স পদ্ধতির কথা বলেছেন সেটাও শেষ পর্যায়ে রয়েছে। সকল কাজ শেষ হলে অর্থমন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে।

    তিনি বলেন, বীমা খাতের উন্নয়নে আইডিআরএ গৃহিত পদক্ষেপ জনসাধারণকে জানাতে চাই। এতে মানুষের আস্থা বৃদ্ধি পাবে। জানাতে চাই আমরা কী কী কাজ করেছি তাদের জন্য। বীমা খাতের উন্নয়ন ও শৃঙ্খলার জন্য। এজন্য আমরা নানা রকমের প্রচারণার পদক্ষেপ নিবো জেলায় জেলায় সভা, সমাবেশ যেগুলো ইলেকট্রনিক বা প্রিন্ট মিডিয়ার মাধ্যমে প্রচারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগেও এটা হয়েছে বর্তমানে এটা আরো বেশি করে করবো। এই তিন বছরের মধ্যে যতটুকু করা সম্ভব আমি সবটুকু করার চেষ্টা করবো।

    সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আইডিআরএ’র সদস্য মো. দলিল উদ্দিন, নির্বাহী পরিচালক (যুগ্ম সচিব) ড. নাজনীন কাউসার চৌধুরী, মো. হারুন-অর-রশিদ, এস এম শাকিল আখতার এছাড়া, ইকোনমিক মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও দৈনিক ব্যাংক বীমা অর্থনীতি’র সম্পাদক মোহাম্মদ মুনীরুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার হাওলাদারসহ বিভিন্ন গণমাধ্যম প্রতিনিধিবৃন্দ।

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ৬:৩৭ অপরাহ্ণ | শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ১৬ মে ২০১৯

    বিজ্ঞাপন

    ১৯ জানুয়ারি ২০১৯

    বিজ্ঞাপন

    ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    বিজ্ঞাপন

    ১০ মার্চ ২০১৯

    আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি