শনিবার ১৩ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩০ চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ব্যাংকাসুরেন্স বাতিলের দাবিতে নন-লাইফ ইন্স্যুরেন্স ইনচার্জদের অবস্থান কর্মসূচি ও প্রতিবাদ সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   সোমবার, ১২ জুন ২০২৩   |   প্রিন্ট   |   153 বার পঠিত

ব্যাংকাসুরেন্স বাতিলের দাবিতে নন-লাইফ ইন্স্যুরেন্স ইনচার্জদের অবস্থান কর্মসূচি ও প্রতিবাদ সমাবেশ

বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের (আইডিআরএ) কার্যালয়ের সামনে ব্যাংকাসুরেন্স প্রকল্প বাতিলের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি ও প্রতিবাদ সভা করেছে নন-লাইফ বীমা কোম্পানির কর্মীরা।

বাংলাদেশ নন-লাইফ ইন্স্যুরেন্স ইনচার্জ অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃত্বে সোমবার (১২ জুন) এ প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়।

সংগঠনের সভাপতি মো. মনজুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে আয়োজিত সমাবেশে বিপুলসংখ্যক বীমা কর্মীসহ সংগঠনের সর্বস্তরের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক এস এম সৈনিক আহমেদের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন উপদেষ্টামন্ডলীর প্রথম সদস্য নিজাম উদ্দিন, উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ফখরুল ইসলাম, লুৎফর আলম, মো. নুরুল আলম চৌধুরী, সিনিয়র সহ-সভাপতি নুরুল হুদা ডিউক, আইন বিষয়ক সম্পাদক শেখ আসাদুজ্জামান আমজাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী আরিফ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা লাভলী আক্তারসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

তারা বলেন, ব্যাংকাসুরেন্স চালু হলে লাখ লাখ বীমাকর্মী বেকার হবে। এ খাতে চরম বিশৃঙ্খলা দেখা দিবে। জাতীয় নির্বাচনের পূর্ব মুহুর্তে যা কোন ভাবেই কাম্য নয়। সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার জন্য একটি স্বার্থান্বেষী মহল জাতীয় নির্বাচনের আগে এ ধরনের অবান্তর প্রকল্প ব্যাংকাসুরেন্স চালু করতে চায়।

বক্তরা আরো বলেন, ব্যাংকাসুরেন্স উন্নত দেশের জন্য প্রযোজ্য। যেখানে মানুষের অভাব থাকায় একজনকে দিয়ে একাধিক কাজ করানো হয়। এছাড়া এ প্রকল্প পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে চরমভাবে ব্যর্থ হয়েছে। তাই আমরা বীমা পেশায় নিয়োজিত সকল কর্মকর্তা কর্মচারী ব্যাংকাসুরেন্স প্রকল্প বন্ধ করার জন্য নিয়ন্ত্রণ সংস্থার চেয়ারম্যানের অফিসের সামনে অবস্থান করে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করছি।

সংগঠনের সভাপতি মো. মজনুরুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন, নানা অনিয়মে দেশের অনেক ব্যাংক দেউলিয়া হয়েছে, আমরা তাদের হাতে বীমা তুলে দিবো না। তিনি বলেন, ইতিপূর্বে ২০১৯ সালে ৭৫ সার্কুলার দিয়ে নন-লাইফ সেক্টরের ডিএমডি, এডিশনাল এমডি পদবীধারী সবাইকে এজেন্ট করে দিয়েছিলেন। সেদিনও আমরা রাজপথে নেমে প্রতিবাদ করেছিলাম। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনকে ৭৫ এর সার্কুলারের বিষয়টি অবহিত করলে তিনি বীমা পেশাকে সমুন্নত রাখার স্বার্থে উক্ত সার্কুলার স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে নেতৃবৃন্দ বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একজন সফল বীমাবিদ ছিলেন। আজও আমরা বিশ্বাস করি বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা বীমা পরিবারের একজন সদস্য হিসেবে বর্তমান ব্যাংকাসুরেন্স প্রকল্পটি বাতিল করার নির্দেশ প্রদান করে আমাদের পাশে থাকবেন।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ৪:২৬ অপরাহ্ণ | সোমবার, ১২ জুন ২০২৩

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।