শুক্রবার ১২ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২৮ আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ব্যাংকাস্যুরেন্স প্রকল্প বীমা শিল্পের অবনতির কারণ হবে-বিএনআইএ সভাপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বৃহস্পতিবার, ০১ জুন ২০২৩   |   প্রিন্ট   |   674 বার পঠিত

ব্যাংকাস্যুরেন্স প্রকল্প বীমা শিল্পের অবনতির কারণ হবে-বিএনআইএ সভাপতি

ব্যাংকাস্যুরেন্স প্রকল্পটি চালু হলে বীমা শিল্পে দীর্ঘদিন ধরে কর্মরতদের অবনতি ঘটবে এবং লাখ লাখ বীমাকর্মী বেকার হবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন বাংলাদেশ নন-লাইফ ইন্স্যুরেন্সে ইনচার্জ অ্যাসোসিয়েশনের (বিএনআইএ) সভাপতি মো. মনজুরুল ইসলাম।

আজ বৃহস্পতিবার প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ নন-লাইফ ইন্স্যুরেন্সে ইনচার্জ অ্যাসোসিয়েশনের (বিএনআইএ) মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।

এতে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের নেতা-কর্মী এবং বিভিন্ন ইন্স্যুরেন্সের কর্মচারীবৃন্দ।

বিএনআইএ সভাপতি মো. মনজুরুল ইসলাম জানান, বীমা শিল্প নিয়ে দিনের পর দিন ষড়যন্ত্র হয়েছে। ইতিপূর্বে ৭৫ সার্কুলার দিয়ে আমাদেরকে এজেন্ট বানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। আমরা যারা অনেক বছর কাজ করে পদবি নিয়ে সম্মানের সাথে কাজ করে আসছি তাদের এক কলমের খোঁচায় এজেন্ট হিসেবে উপস্থাপন করেছিল। সে দিনও আমরা রাজপথে নেমেছিলাম আমাদের সংগ্রামের পরে সেদিন তারা সার্কুলার বাদ দিতে বাধ্য হয়েছিল। তিনি আরো বলেন, আজকে তারা নতুন করে আবার এই পেশাকে সর্বগ্রাস করার জন্য ব্যাংকাস্যুরেন্স নামের এক অধ্যাবেস নিয়ে এসেছে।

আপনারা ভালোভাবে অবগত আছেন যে ইউরোপীয় দেশ গুলোতে এই পদ্ধতি চালু আছে। কারণ সেই দেশগুলোতে মানুষ কম। এখানে একজনকে দিয়ে তিনজনের কাজ করানো হয়। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষের জন্য এটা প্রযোজ্য নয়। যেখানে প্রচুর পরিমাণের বেকার লোকের বসবাস সেখানে নতুন করে এই ব্যাংকাস্যুরেন্স এক কলমের খোঁচায় এই খাতের মানুষদের বেকার কর্মহীন বানানোর জন্য ষড়যন্ত্র করছে একদল মানুষ।

বীমায় এতো বছর ধরে যারা নিয়োজিত তাদের জায়গায় ব্যাংকারদের হাতে সব নিয়ন্ত্রণ দেওয়ার জন্য তারা এই পদক্ষেপ জারি করতে চায়। আমারা তাদের এই অসৎ উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন যাতে না হয় তার জন্য রাজপথের কর্মসূচি পালন করছি, দরকার হলে আরো করবো। আমাদের আন্দোলনের দাবি একটাই ব্যাংকাস্যুরেন্স প্রকল্পটি বাদ দিতে হবে।

ব্যাংকাস্যুরেন্স হচ্ছে মূলত ব্যাংকার এবং গ্রাহকদের সর্ম্পকের ভিত্তিতে ব্যাংকাররা গ্রাহকদের এই বীমা সংক্রান্ত ধারণা দিবেন এবং নেওয়ার প্রস্তাব দেবেন। ব্যাংকের মাধ্যমে বিক্রি করা বীমাপণ্য জনপ্রিয়তা পাওয়ায় এটিকে বলা হয় ‘ব্যাংক ইন্স্যুরেন্স’। এ লক্ষ্যে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ (এফআইডি) গুরুত্বপূর্ণ সব অংশীজনদের নিয়ে গত ৩ ফেব্রুয়ারি একটি বৈঠক করে।

 

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ৭:৪২ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০১ জুন ২০২৩

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বু বৃহ শুক্র
 
১০১১
১৩১৫১৬১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭৩০৩১  
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।