• মেলায় মিলছে স্বল্প সুদে গৃহঋণ

    বিবিএনিউজ.নেট | ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৪:০৩ অপরাহ্ণ

    মেলায় মিলছে স্বল্প সুদে গৃহঋণ
    apps

    শীতকালীন আবাসন মেলায় স্বল্প সুদে গৃহঋণ দিচ্ছে বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানভেদে ৯ থেকে ১১ শতাংশ সুদে গৃহঋণ দেয়া হচ্ছে।

    রাজধানীর শেরে বাংলা নগরের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে চলছে পাঁচ দিনব্যাপী শীতকালীন রিহ্যাব ফেয়ার-২০১৯। গত বুধবার শুরু হওয়া এ মেলা শেষ হচ্ছে আজ শনিবার ।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    মেলায় আবাসন খাতে ঋণ সরবরাহকারী ১৪টি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানগুলো গ্রাহক ও দর্শনার্থীদের গৃহঋণ সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য দিচ্ছে। কোন ব্যাংকের ঋণে সুদ কত, এর সঙ্গে অন্য কোনো সার্ভিস চার্জ রয়েছে কি না, তা জানতে এসব স্টলে ভিড় করছেন দর্শনার্থীরা।

    মেলায় ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এবার আবাসন মেলায় সর্বনিম্ন দিচ্ছে বেসরকারি ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড। সর্বোচ্চ সহজ শর্তে ২ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। ‘আমার বাড়ি’ নামের প্রকল্পে হিডেন চার্জ ছাড়াই গৃহঋণ দিচ্ছে আইএফআইসি ব্যাংক। প্রতিষ্ঠানটি এ পর্যন্ত চার হাজার কোটি টাকা সহজ শর্তে গৃহঋণ দিয়েছে বলে দাবি করছে।


    ফ্ল্যাট ক্রয়ের ক্ষেত্রে ৯ দশমিক ৯০ শতাংশ সুদে ঋণ দিচ্ছে সিটি ব্যাংক। তবে কনস্ট্রাকশনের ক্ষেত্রে সুদ হার ১০ শতাংশ। মেলা উপলক্ষে প্রতিষ্ঠানটি প্রসেসিং ফি-তে ৫০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে। বেসরকারি ব্র্যাক ব্যাংক দিচ্ছে ১০ শতাংশ সুদহারে গৃহঋণ। মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের গৃহঋণ সুদহার সাড়ে ১০ শতাংশ।

    মেলায় বিভিন্ন ঋণের তথ্য দিচ্ছে বেসরকারি প্রাইম ব্যাংক। প্রতিষ্ঠানটি সাড়ে ১০ শতাংশ সুদহারে গৃহঋণ দিচ্ছে। এছাড়া ব্যাংক এশিয়ার গৃহঋণে সুদহার ১১ শতাংশ এবং স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক দিচ্ছে ১১ শতাংশ সুদে।

    আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে আইডিএলসি সার্ভিস হোল্ডারদের জন্য প্রায় ১১ ও ব্যবসায়ীদের জন্য ১১ দশমিক ৪৯ শতাংশ সুদে গৃহঋণ দিচ্ছে। লংকা বাংলা ফাইন্যান্স ১১ দশমিক ৪৯, ন্যাশনাল হাউজিং ১১ এবং আইপিডিসি ১১ শতাংশ সুদে ঋণ দিচ্ছে। আর আইএফআইসির সুদহার ১০ থেকে ১১ শতাংশ।

    মেলায় এসেছেন বেসরকারি চাকরিজীবী জাহাঙ্গীর আলম। তিনি জানান, আমাদের মতো চাকরিজীবীদের বড় অংকের টাকা দিয়ে বাড়ি কেনা সম্ভব নয়। তাই ব্যাংক ঋণ আমাদের ভরসা।

    তিনি বলেন, মেলায় একসঙ্গে অনেক প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এখানে কোন প্রতিষ্ঠান কত টাকা সুদে ঋণ দিচ্ছে তা যাচাই-বাছাই করছি। পাশাপাশি তারা কী শর্ত দিচ্ছে তা-ও জানার চেষ্টা করছি।

    পাঁচ দিনব্যাপী এ শীতকালীন মেলার উদ্বোধন করেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম। ২৪ ডিসেম্বর শুরু হওয়া পাঁচ দিনের এই আবাসন মেলা শেষ হচ্ছে আজ শনিবার ৷মেলায় আবাসন খাতের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ২৩০টি স্টল দিয়েছে। এসব স্টলে সরাসরি ফ্ল্যাট ও প্লট বুকিং দেয়ার সুযোগ রয়েছে। বুকিং দিলে নগদ অর্থছাড়ের পাশাপাশি মিলছে আকর্ষণীয় উপহার। কিস্তিতে ফ্ল্যাট-প্লট বুকিং দেয়ার সুযোগও রয়েছে। এর বাইরে মেলায় ৩০টি নির্মাণসামগ্রী উৎপাদক ও সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। বৈদ্যুতিক সামগ্রী, গৃহ সাজানোর সরঞ্জামাদি, টাইল্স ও সিরামিক্স পণ্যও রয়েছে।

    আবাসন খাতে ঋণ সরবরাহকারী ১৪টি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানও অংশ নিয়েছে মেলায়। গৃহঋণের পরিমাণ ও প্রক্রিয়া সম্পর্কে ধারণা দিচ্ছে এসব প্রতিষ্ঠান।

    দর্শনার্থীরা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলায় প্রবেশ করতে পারবেন। প্রতিবারের মতো এবারের মেলায় প্রবেশে দুই ধরনের টিকিট রয়েছে। একবার প্রবেশের টিকিটের মূল্য ৫০ টাকা। তবে পাঁচ দিনের মেলায় প্রতিদিন প্রবেশের মাল্টিপল এন্ট্রি টিকিটের মূল্য ১০০ টাকা। টিকিটের র‌্যাফল ড্রতে থাকবে আকর্ষণীয় পুরস্কার। টিকিটের অর্থ দুস্থদের সাহায্যে ব্যয় করা হবে বলে জানিয়েছে রিহ্যাব।

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ৪:০৩ অপরাহ্ণ | শনিবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি