• সহিংসতা: দেশে দেশে প্রতিবাদী নারীদের বিক্ষোভ

    বিবিএনিউজ.নেট | ২৭ নভেম্বর ২০১৯ | ২:০১ অপরাহ্ণ

    সহিংসতা: দেশে দেশে প্রতিবাদী নারীদের বিক্ষোভ
    apps

    নির্যাতন-সহিংসতার সম্প্রতি রাস্তায় নেমেছিলেন ফ্রান্স ও লেবাননেরর নারীরা। গতকাল আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবসে রাস্তায় নেমেছেন রাশিয়া, সুদান, গুয়াতেমালা, তুরস্ক, মেক্সিকো, চিলি, কলম্বিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, স্পেন, পর্তুগাল, আর্জেন্টিনা, এল সালভাদর, বুলগেরিয়াসহ অসংখ্য দেশের নারী। ভিন্ন দেশ কিন্তু প্রতিবাদে তারা এক।

    অত্যাচার, নির্যাতন আর সহিংসতার বিরুদ্ধে এভাবেই সরব হচ্ছেন বিশ্বের নানা প্রান্তের নারীরা। জাতিসংঘ সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গোটা বিশ্বে শুধু ২০১৭ সালেই ৮৭ হাজার নারী ও কিশোরী খুন হয়েছেন। মঙ্গলবার আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবসে বিশ্বজুড়ে হাজার হাজার র‍্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    গত সপ্তাহে প্রথম পথে নামেন ফরাসি নারীরা। অভিনেতা ও টিভি তারকা ছাড়াও প্রায় ৭০টি সংগঠন তাতে যোগ দেয়। ফ্রান্স সরকার জানায়, নারীদের বিরুদ্ধে নির্যাতন হলে সেই তথ্য এখন থেকে জানাতে পারবেন চিকিৎসকেরা। এছাড়া মানসিক নির্যাতনের শিকার নারীরাও যাতে সুচিকিৎসা পান, সেই ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার।

    গতকাল ছিল আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন বিরোধী দিবস। দিবসটি উপলক্ষেই তুরস্কের বড় শহর ইস্তাম্বুলে বিশাল র‌্যালি নিয়ে রাস্তায় নামের দুই হাজারেরও বেশি নারী। তবে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী তাতে শক্তি প্রদর্শন করেছে। বিক্ষোভ ঠেকাতে কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেটও ছুড়তে দেখা গেছে পুলিশকে।


    এদিকে দিবসটি উপলক্ষে নারী নির্যাতন বন্ধের দাবিতে মঙ্গলবার রাস্তায় নেমেছিলেন রুশ নারীরা। রাজধানী মস্কোতে বিশাল মিছিল করে নারী অধিকার রক্ষার দাবিতে স্লোগান দিয়েছেন তারা। সরকার যাতে এ সংক্রান্ত বিশেষ বিল পাস করিয়ে নারীদের সুরক্ষা দেয় মিছিলে সেই দাবিও রেখেছেন দেশটির প্রতিবাদী সেসব নারী।

    আফিকার দেশ সুদানেও মঙ্গলবার একই দৃশ্য দেখা গেছে। গত কয়েক দশকের মধ্যে এই প্রথম রাজধানী খার্তুমের রাস্তায় দেখা যায় হাজার হাজার প্রতিবাদী নারীকে। শত শত নারীর সেই বিক্ষোভ র‌্যালিতে স্লোগান ছিল, ‘স্বাধীনতা, শান্তি আর সুবিচার।’

    ধর্ষণ ও নারী হত্যা বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থতার প্রতিবাদে বিক্ষোভ হয়েছে মেক্সিকোয়। দেশটির রাজধানীতে পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষও হয়েছে। এসময় বাসের কাঁচ ভাঙা ও চিত্রিত স্মৃতিসৌধে স্প্রে নিক্ষেপ করে মুখোশধারীরা। এছাড়া গতকাল গুয়েতেমালার প্রতিবাদী নারীরাও রাস্তায় নেমেছিলেন।

    ইউরোপের আরেক দেশ স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদেও প্রতিবাদী নারীরা মাঠে নেমে তাদের বিরুদ্ধে নির্যাতন সহিংসতার প্রতিবাদ জানিয়ে তা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন। চলতি বছরে দেশটির ৫২ জন নারী নিজের বর্তমান কিংবা প্রাক্তন সঙ্গীর হাতে খুন হয়েছেন। ফ্রান্সে সেই সংখ্যাটাই ১১৭।

    আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন বিরোধী দিবস স্মরণে মাধ্যরাতে ফ্রান্সের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা আইফেল টাওয়ারের আলো এক মিনিট নিভিয়ে রাখা হয়েছিল। দেশটির প্রধানমন্ত্রী এদোয়ার ফিলিপ বলেছেন, এই ধরনের আন্দোলন সরকারের কাছে ‘ইলেকট্রিক শকের’ মতো কাজ করবে বলে তিনি আশাবাদী।

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ২:০১ অপরাহ্ণ | বুধবার, ২৭ নভেম্বর ২০১৯

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি