সোমবার ২০ মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাত ব্যাংকের এমডি পদ শূন্য হচ্ছে

বিবিএনিউজ.নেট   |   বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯   |   প্রিন্ট   |   895 বার পঠিত

সাত ব্যাংকের এমডি পদ শূন্য হচ্ছে

সরকারি-বেসরকারি খাতের সাত ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের (এমডি) পদ শূন্য হচ্ছে। রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী, অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংকের এমডি পদ শূন্য হচ্ছে আগামী মাসেই। এরই মধ্যে শূন্য হয়েছে বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেডের (বিডিবিএল) এমডি পদ। বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মধ্যে শূন্য হচ্ছে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক (এমটিবি), যমুনা ও এনআরবি ব্যাংক লিমিটেডের এমডি পদও। এসব পদে নিয়োগ দেয়ার প্রক্রিয়া এরই মধ্যে শুরু করেছে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের পর্ষদ ও অর্থ মন্ত্রণালয়।

সাধারণত বিদ্যমান এমডির মেয়াদ শেষ হওয়ার তিন মাস আগে থেকেই নতুন এমডি নিয়োগের উদ্যোগ নেয়া হয়। ২৯ জুলাই এনআরবি ব্যাংক এমডি মো. মেহমুদ হোসেনের চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে। বয়সসীমা ৬৫ পূর্ণ হওয়ায় অক্টোবরে অবসরে যাচ্ছেন যমুনা ব্যাংকের এমডি শফিকুল আলম। একই কারণে নভেম্বরে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক থেকে অবসরে যাবেন আনিস এ খান। বেসরকারি খাতের এ তিন ব্যাংকের এমডি নিয়োগ দেয়ার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। রাষ্ট্রায়ত্ত চারটি ব্যাংকের এমডি নিয়োগ দিতে সার্চ কমিটি গঠন করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়।

শূন্য হতে যাওয়া মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের এমডি পদে দ্বিতীয় প্রজন্মের একটি ব্যাংকের এমডির যোগদানের বিষয়টি প্রাথমিকভাবে আলোচনা হয়েছে। দ্বিতীয় প্রজন্মের ওই ব্যাংকটির এমডি হতে পারেন চতুর্থ প্রজন্মের একটি ব্যাংকের এমডি। আর যমুনা ব্যাংকের এমডি হতে পারেন ব্যাংকটির অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক। রাষ্ট্রায়ত্ত চারটি ব্যাংকেই নতুনদের এমডি পদে নিয়োগ দেয়ার সম্ভাবনা বেশি বলে অর্থ মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে। সবকিছু ঠিকমতো চললে এ বছরের মধ্যেই সরকারি-বেসরকারি সাত ব্যাংক নতুন এমডি পাবে।

২০১৬ সালের জুলাইয়ে তিন বছরের জন্য চতুর্থ প্রজন্মের এনআরবি ব্যাংক লিমিটেডের এমডি পদে যোগ দেন মো. মেহমুদ হোসেন। ২৯ জুলাই ব্যাংকটির এমডি হিসেবে তিন বছর পূর্ণ হচ্ছে তার। এনআরবি ব্যাংকের এমডি পদে থাকতে হলে মেহমুদ হোসেনকে নতুন করে নিয়োগ দিতে হবে। তবে সে সম্ভাবনা নেই বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। ২১ জুলাই এনআরবি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভা আহ্বান করা হয়েছে। সেখানে নতুন এমডির বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

এনআরবি ব্যাংকে যোগদানের আগে মেহমুদ হোসেন ব্যাংক এশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও এমডি ছিলেন। ১৯৮৪ সালে ন্যাশনাল ব্যাংকের কর্মকর্তা হিসেবে চাকরিজীবন শুরু করা এ ব্যাংকার এর আগে প্রাইম ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালকও ছিলেন।

এ প্রসঙ্গে মো. মেহমুদ হোসেন বলেন, যেকোনো ব্যাংকের এমডি পদে থাকা না থাকা দুই পক্ষের মতামতের ওপর নির্ভর করে। একদিকে রয়েছে পরিচালনা পর্ষদ, অন্যদিকে এমডি পদে থাকা ব্যক্তি। ২৯ এপ্রিল এনআরবি ব্যাংকের সঙ্গে আমার চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে। মেয়াদ শেষেই ক্যারিয়ারের বিষয়ে নতুন সিদ্ধান্ত নেব।

২০১৩ সালের ২৯ জানুয়ারি থেকে যমুনা ব্যাংক লিমিটেডের এমডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন শফিকুল আলম। আগামী অক্টোবরে এমডি পদে ৬৫ বছরের বয়সসীমা শেষ হচ্ছে তার। ফলে এমডি পদ থেকে অবসর নিচ্ছেন তিনি। এমডি পদ শূন্য হওয়ায় তৃতীয় প্রজন্মের ব্যাংকটির এমডি হতে বেশ কয়েকজন যোগাযোগ করেছেন। তবে ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদ নিজস্ব কর্মীদের ওপরই আস্থা রাখতে চাইছেন। এক্ষেত্রে যমুনা ব্যাংকের পরবর্তী এমডি হতে পারেন মির্জা ইলিয়াস উদ্দিন আহমেদ। তিনি ব্যাংকটির অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে দায়িত্ব পালন করছেন।

প্রায় এক দশক মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের এমডি পদে দায়িত্ব পালন করছেন আনিস এ খান। ২০০৯ সালের এপ্রিলে দেশের তৃতীয় প্রজন্মের বেসরকারি ব্যাংকটির এমডির দায়িত্ব নিয়েছিলেন তিনি। তার নেতৃত্বে শক্তিশালী আর্থিক ভিতের ওপর দাঁড়াতে পেরেছে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক। তবে এমডি পদের বয়সসীমা শেষ হওয়ায় আগামী নভেম্বরে অবসরে যাচ্ছেন আনিস এ খান। এজন্য ব্যাংকটিতে নতুন এমডি নিয়োগ দেয়ার কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে আনিস এ খান বলেন, এমডি নিয়োগ দেয়ার বিষয়টি পরিচালনা পর্ষদ দেখে। এরই মধ্যে পর্ষদে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এমডি নিয়োগের জন্য বেশকিছু নামও আলোচনায় এসেছে। তবে এখনো কোনো কিছু চূড়ান্ত হয়নি।

২০১৬ সালের আগস্টে একসঙ্গে রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী, অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংকে এমডি নিয়োগ দেয় অর্থ মন্ত্রণালয়। সোনালী ব্যাংকে মো. ওবায়েদ উল্লাহ্ আল্ মাসুদ, অগ্রণী ব্যাংকে মো. শামস-উল-ইসলাম ও রূপালী ব্যাংকে মো. আতাউর রহমান প্রধান এমডি পদে নিয়োগ পান। তিন বছরের জন্য এ নিয়োগ দেয়া হয়েছিল। সে হিসেবে আগামী মাসেই তিনটি ব্যাংকের এমডিদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে।

রাষ্ট্রায়ত্ত এ তিন ব্যাংকে নতুন এমডি নিয়োগ দিতে এরই মধ্যে সার্চ কমিটি গঠন করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ। গত সপ্তাহে চার সদস্যের এ কমিটি গঠন করা হয়। আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিবকে আহ্বায়ক করে গঠিত এ কমিটি প্রতিটি ব্যাংকে এমডি পদে নিয়োগের জন্য তিনজন করে প্রার্থী বাছাই করে সরকারের অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করবে। এরপর সংশ্লিষ্ট ব্যাংক সরকারের অনুমোদন পাওয়া প্রার্থীকে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন নিয়ে ব্যাংকের এমডি নিয়োগ দেবে।

ব্যাংক কোম্পানি আইন অনুযায়ী, তফসিলি ব্যাংকের এমডি পদে দায়িত্ব পালনের সর্বোচ্চ বয়সসীমা নির্ধারণ করা হয়েছে ৬৫ বছর। কিন্তু অনেক দিন থেকেই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর এমডি পদের জন্য সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৬২-কে অনুসরণ করে আসছে অর্থ মন্ত্রণালয়। এর আগে এ-সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপনও জারি করা হয়েছিল। অগ্রণী ব্যাংকের এমডি মো. শামস-উল-ইসলামের বয়সসীমা ৬২ শেষ হতে যাচ্ছে। সে হিসেবে নতুন করে তার এমডি হওয়ার সম্ভাবনা নেই বলে অর্থ মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে।

এছাড়া রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী ও রূপালী ব্যাংকের জন্যও নতুন কাউকে এমডি নিয়োগ দেয়ার বিষয়টি ভাবছে অর্থ মন্ত্রণালয়। এক্ষেত্রে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর দুই বা তার বেশি মেয়াদে এমডি হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্তদের তিক্ত অভিজ্ঞতাকে আমলে নেয়া হচ্ছে।

আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের দায়িত্বশীল একজন কর্মকর্তা বলেন, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোয় এক মেয়াদের বেশি দায়িত্ব পালনকারী এমডিদের নিয়ে অতীত অভিজ্ঞতা সুখকর নয়। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই ব্যাংকগুলোর এমডিদের দ্বিতীয় মেয়াদে বড় বড় আর্থিক কেলেঙ্কারি ও অর্থ লোপাটের ঘটনা ঘটেছে। এজন্য সরকার চাইছে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোকে ঢেলে সাজাতে। ফলে বর্তমান এমডিদের সেফ এক্সিট দিয়ে নতুনদের কথা বিবেচনায় রাখা হচ্ছে।

এদিকে সম্প্রতি মেয়াদ পূর্ণ করে অবসরে গেছেন বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেডের (বিডিবিএল) এমডি মনজুর আহমেদ। ফলে ওই ব্যাংকটির এমডি পদ শূন্য রয়েছে। বিডিবিএলে এমডি নিয়োগে বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়েছিল। তবে ওই বিজ্ঞপ্তির শর্ত অনুযায়ী প্রত্যাশিত আবেদন পাওয়া যায়নি। এজন্য গতকাল ব্যাংকটির সার্চ কমিটির বৈঠকে শর্ত শিথিল করে নতুন করে বিজ্ঞপ্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এক্ষেত্রে আবেদনের যোগ্যতা শিথিল করা হচ্ছে।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ১:৪২ অপরাহ্ণ | বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।