শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

হর্ন হুদাই বাজায় ভুদাই

  |   শনিবার, ০৫ জানুয়ারি ২০১৯   |   প্রিন্ট   |   1529 বার পঠিত

হর্ন হুদাই বাজায় ভুদাই

রাজধানীর ব্যস্ত সড়কের মোড়ে ও সড়ক দ্বীপে কয়েকজন তরুণ প্ল্যাকার্ড নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে। সড়কে চলাচলকারী গাড়ির চালকরা প্ল্যাকার্ড বা ব্যানার হাতে দাঁড়িয়ে থাকা তরুণদের সাধুবাদ জানাচ্ছেন আবার কেউ বা লজ্জায় মুখ লুকানোর চেষ্টা করছেন। কি লেখা রয়েছে এই প্ল্যাকার্ডে?

তাদের প্ল্যাকার্ডে রয়েছে চার শব্দের একটি বাক্য, ‘হর্ন হুদাই বাজায় ভুদাই।’ বাক্যটি দেখেই বুঝতে বাকি থাকে না তাদের উদ্দেশ্য কী? তারপরও দাঁড়িয়ে থাকা তরুণদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সড়কে অযথা হর্ন বাজানো রোধ করতে এই উদ্যোগ নিয়েছেন তারা। এই প্ল্যাকার্ডের মাধ্যমে যারা অযথা হর্ন বাজাচ্ছেন, তাদের একদিকে যেমন লজ্জা দেওয়ার চেষ্টা করছেন, পাশাপাশি সবার মধ্যে সচেতনতা তৈরির কাজটিও করছেন তারা।

উদ্যোগ নিয়ে এ সচেতনতা তৈরির কাজটি গত চার বছর আগে শুরু করেন মমিনুর রহমান রয়েল। তিনি একটি বিজ্ঞাপনী সংস্থায় চাকরি করেন। সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে এ উদ্যোগটি নিয়েছেন বলে জানান।

 প্ল্যাকার্ড হাতে দুই তরুণ

শুক্রবার বিকালে ধানমন্ডি ২৭ নম্বর সড়কের মোড়ে বাংলাদেশ আই হসপিটালের সামনে চারটি প্ল্যাকার্ড নিয়ে দাঁড়ানো ছিলেন রয়েলসহ আরও কয়েকজন তরুণ। নিয়মিতভাবে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়িয়ে জনসচেতনতা তৈরির কাজটি করেন তারা। তাদের কাজকে সবাই সাধুবাদ জানাচ্ছে বলে জানান রয়েল।

রাস্তার মোড়ে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাফিক পুলিশ, পথচারী, মোটরসাইকেল চালক, চা দোকানি, গাড়ির চালকসহ সব শ্রেণির মানুষ এই উদ্যোগকে স্বাগত চানাচ্ছে বলে উল্লেখ করেন রয়েল।

উদ্যোগের শুরুর কথা জানিয়ে রয়েল বলেন, ‘শুরুটা চার বছর আগে। আমার উদ্দেশ্য হচ্ছে, ঢাকা এমন কোনও শহর না যেখানে ফাঁকা রাস্তায় গাড়ি নিয়ে আপনার প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে কেউ দাঁড়িয়ে থাকবে। এত জনবহুল একটা শহরে অযথা হর্ন বাজানোর দরকার নেই। আমি ব্যক্তিগতভাবে স্টাডি করেছি, যারা এক্সপার্ট তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। অতিরিক্ত হর্নের কারণে অনেক সমস্যার সৃষ্টি হয়। মানুষের টেম্পারমেন্ট কমে যায়, উচ্চ রক্তচাপ হয়, গর্ভবতী মায়ের সন্তান ত্রুটিপূর্ণ হতে পারে।’
1535447678-royal-5

‘এ ভাবনা থেকে একটু একটু করে কাজ শুরু। প্রথমে একটি লেখা লিখলাম। ভাবনাটা হচ্ছে, ঢাকার লোকজন ‘হুদাই’ কথাটা অকারণ অর্থে বলে। ‘ভুদাই’ শব্দটা স্থূল বুদ্ধি লোক বা মোটা বুদ্ধির লোক অর্থে ব্যবহার হয়। দুটো শব্দকে মার্চ করে এমন একটা লাইন করতে চেয়েছি, যেটা পড়ে মানুষ হাসবে। পাশাপাশি লজ্জাও পাবে।’ বলছিলেন রয়েল।

অযথা হর্ন না বাজিয়ে শব্দ দূষণ কমানোর আহ্বান জানান এই তরুণ।
রয়েল বলেন, ‘আমরা রাস্তায় গাড়ি চালাতে গিয়ে একটি প্রতিযোগিতা শুরু করি। হর্ন বাজিয়ে আমরা হয়ত মনে করি, সামনের লোকটা সরে গিয়ে আমাকে জায়গা দিতে বাধ্য। কিন্তু সামনের লোকটা সরে কোথায় যাবে? জায়গাতো নেই। তাই শুধু শুধু হর্ন বাজিয়ে নিজেকে প্রতিযোগিতার মধ্যে না ফেলে আসুন শৃঙ্খলিতভাবে গাড়ি চালাই। শব্দদূষণ কমাই।’

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ১২:৪৩ অপরাহ্ণ | শনিবার, ০৫ জানুয়ারি ২০১৯

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।