বুধবার ২৬ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১২ আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

২৩ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক:   |   রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩   |   প্রিন্ট   |   60 বার পঠিত

২৩ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ২৩ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বেক্সিমকো লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ২২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪ টাকা ৪১ পয়সা।

অন্যদিকে, অর্থবছরের তিন প্রান্তিক বা ৯ মাসে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৮ টাকা ৫৭ পয়সা। যা আগের একই সময়ে ছিল ১২ টাকা ৮৯ পয়সা।

৩১ মার্চ ২০২৩ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৯৫ টাকা ৯৯ পয়সা।

মুন্নু এগ্রো : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭১ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৬১ পয়সা।

অন্যদিকে, অর্থবছরের তিন প্রান্তিক বা ৯ মাসে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২ টাকা ৭ পয়সা। যা আগের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৪৬ পয়সা।

৩১ মার্চ ২০২৩ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৭৫ টাকা ৭ পয়সা।

যমুনা অয়েল লিমিটেড : অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫ টাকা ৫৪ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২ টাকা ০২ পয়সা।

অন্যদিকে, অর্থবছরের তিন প্রান্তিক বা ৯ মাসে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২০ টাকা ৮১ পয়সা। যা আগের একই সময়ে ছিল ১০ টাকা ৪৫ পয়সা।

৩১ মার্চ ২০২৩ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৯৫ টাকা ৪৩ পয়সা।

নর্দার্ণ ইসলামী ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড : প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৯ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৬৫ পয়সা।

৩১ মার্চ ২০২৩ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৩ টাকা ৮৫ পয়সা।

ন্যাশনাল হাইজং ফাইন্যান্স : প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ২৫ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২ টাশা ২৩ পয়সা।

৩১ মার্চ ২০২৩ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৯ টাকা ৪০ পয়সা।

রেনাটা লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি –মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫ টাকা ১৮ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ১১ টাকা ৭৮ পয়সা।

অপরদিকে, তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২৩ টাকা ৪৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩৫ টাকা ৩৫ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ২৬৬ টাকা ৯৪ পয়সা।

আমরা টেকনোলজিস লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২৭ পয়সা।

অন্যদিকে, অর্থবছরের তিন প্রান্তিক বা ৯ মাসে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৬৭ পয়সা। যা আগের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৩৮ পয়সা।

৩১ মার্চ ২০২৩ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ২২ টাকা ৮৩ পয়সা।

আমরা নেটওয়ার্ক : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা এক পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩৮ পয়সা।

অন্যদিকে, অর্থবছরের তিন প্রান্তিক বা ৯ মাসে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৩ টাকা ২৫ পয়সা। যা আগের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ২৩ পয়সা।

৩১ মার্চ ২০২৩ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩৭ টাকা ৭২ পয়সা।

হামিদ ফেব্রিক্স : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২০ পয়সা।

অন্যদিকে, অর্থবছরের তিন প্রান্তিক বা ৯ মাসে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৩২ পয়সা। যা আগের একই সময়ে ছিল ৩৮ পয়সা।

৩১ মার্চ ২০২৩ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩৮ টাকা ২৯ পয়সা।

ইস্টার্ণ লুব্রিকেন্টস লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি –মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ৯৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩৫ পয়সা।

অপরদিকে, তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৯ টাকা ৮৯ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২ টাকা ৮১ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৭৬ টাকা ৭২ পয়সা।

ক্রউন সিমেন্ট লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি –মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৫২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ১৬ পয়সা।

অপরদিকে, তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২ টাকা ১৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৯১ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৫০ টাকা ৩৬ পয়সা।

সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি –মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬১ পয়সা।

অপরদিকে, তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ২১ পয়সা।

হাক্কানী পাল্প লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি –মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ২০ পয়সা।

অপরদিকে, তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির লোকসান হয়েছে ৭০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ১ টাকা ০৬ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ২২ টাকা ৮৪ পয়সা।

এস আলম কোল্ড স্টোরেজ লিমিটেড : তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৬০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৬২ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৮ টাকা ৬৭ পয়সা।

ডেল্টা স্পিনার্স লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি –মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০৫ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ০১ পয়সা।

অপরদিকে, তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির লোকসান হয়েছে ০৪ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ০৪ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৩ টাকা ২১ পয়সা।

আনলিমা ইয়ার্ন লিমিটেড : তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ৩৪ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১০ টাকা ৫৪ পয়সা।

মুন্নু সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি –মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪০ পয়সা।

অপরদিকে, তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৩২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ১ টাকা ০৪ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৮২ টাকা ৮১ পয়সা।

আরএন স্পিনিং মিলস লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি –মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ০২ পয়সা।

অপরদিকে, তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির লোকসান হয়েছে ০৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ০৮ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ০.০০০৬ টাকা নেগেটিভ।

ইউনিক হোটেল লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি –মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ০৪ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩ টাকা।

অপরদিকে, তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৫ টাকা ৫৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩ টাকা ২৭ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৮৯ টাকা ০৩ পয়সা।

খুলনা পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি –মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ০৬ পয়সা।

অপরদিকে, তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির লোকসান হয়েছে ২ টাকা ০৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ২৪ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৮ টাকা ৮১ পয়সা।

মীর আক্তার হোসাইন লিমিটেড : তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি –মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২৪ পয়সা।

অপরদিকে, তিন প্রান্তিককে বা নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৩১ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ১ টাকা ৭৮ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৪৭ টাকা ৮২ পয়সা।

শাইনপুকুর সিরামিকস লিমিটেড : অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ১৭ পয়সা।

অন্যদিকে, অর্থবছরের তিন প্রান্তিক বা ৯ মাসে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৩১ পয়সা। যা আগের একই সময়ে ছিল ২৭ পয়সা।

বেক্সিমকো ফার্মা লিমিটেড : অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ১৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২ টাকা ৪৭ পয়সা।

অন্যদিকে, অর্থবছরের তিন প্রান্তিক বা ৯ মাসে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৮ টাকা ১৫ পয়সা। যা আগের একই সময়ে ছিল ৯ টাকা ৬০ পয়সা।

ফু-ওয়াং ফুড লিমিটেড : অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২ পয়সা।

অন্যদিকে, অর্থবছরের তিন প্রান্তিক বা ৯ মাসে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১৭ পয়সা। যা আগের একই সময়ে ছিল ১১ টাকা ৬০ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৩ টাকা ৯৬ পয়সা।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ১২:৪৩ অপরাহ্ণ | রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।