• শিরোনাম

    ২ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন শুরু

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ১৯ এপ্রিল ২০২১ | ১২:৩৫ অপরাহ্ণ

    ২ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন শুরু
    Spread the love
    • Yum

    লভ্যাংশ সংক্রান্ত রেকর্ড ডেটের পর আগামীকাল শেয়ার লেনদেন শুরু হবে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ২ কোম্পানির। এগুলো হলো- প্রভাতী ইন্স্যুরেন্স এবং পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স। রেকর্ড ডেটের কারণে আজ এ দুই কোম্পানির শেয়ার লেনদেন স্থগিত রয়েছে। এর আগে ১৩ এপ্রিল থেকে ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত স্পট মাকেটে পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার লেনদেন হয়। ১৫ এবং ১৮ এপ্রিল স্পট মার্কেটে শেয়ার লেনদেন করে প্রভাতী ইন্স্যুরেন্স। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

    প্রভাতী ইন্স্যুরেন্স : কোম্পানিটি ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ১৭ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ২০১৯ সালে কোম্পানিটি বিনিয়োগকারীদেরকে ১২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল। ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ সমাপ্ত অর্থবছরের কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ১০ পয়সা। গত বছরের একই সময় কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ২ টাকা ৩৮ পয়সা। কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ২১ টাকা ১১ পয়সা। গত বছরের একই সময় এনএভি ছিল ১৮ টাকা ৯৪ পয়সা।
    ঘোষিত লভ্যাংশ সংশ্লিষ্ট বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ৩০ মে, সকাল ১১টায় ডিজিটাল প্ল্যাটফরমে কোম্পানিটির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১৯ এপ্রিল।
    ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানিটি ২০০৯ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। এর অনুমোদিত ও পরিশোধিত মূলধন যথাক্রমে- ১২৫ কোটি টাকা এবং ২৯ কোটি ৭০ লাখ ৩০ হাজার টাকা। বর্তমানে কোম্পানিটির রিজার্ভের পরিমাণ ২৬ কোটি ৫৫ লাখ টাকা। এ কোম্পাানির ২ কোটি ৯৭ লাখ ২ হাজার ৫০৫টি শেয়ারের মধ্যে ৩০.০৩ শতাংশ উদ্যোক্তা পরিচালক, ১৩.৫৮ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী এবং ৫৬.৩৯ শতাংশ শেয়ার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে রয়েছে।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বীমা খাতের কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ সমাপ্ত বছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে সংশ্লিষ্ট বিনিয়োগকারীদের জন্য কোনো লভ্যাংশ ঘোষণা করেনি। এ নিয়ে কোম্পানিটি গত ৪ বছর বিনিয়োগকারীদেরকে কোনো লভ্যাংশ দেয়নি। সর্বশেষ ২০১৬ সালে ২০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছিল।
    লভ্যাংশ না দেওয়ার সিদ্ধান্ত সংশ্লিষ্ট বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আগামী ৬ মে অনুষ্ঠিত হবে।
    এদিকে, কোম্পানিটির তৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই, ২০২০-সেপ্টেম্বর,২০২০) ৪ কোটি ৬৭ লাখ টাকার প্রিমিয়াম আয় বেড়েছে। আগের বছর একই সময় কমেছিল ৬ কোটি ১০ লাখ টাকা।
    ৯ মাসে (জানুয়ারি ২০-সেপ্টেম্বর ২০) কোম্পানিটির প্রিমিয়াম আয় কমেছে ৫ কোটি ৮৭ লাখ টাকা। আর লাইফ ফান্ডের পরিমাণ দাঁড়য় ১৫ কোটি ১০ লাখ টাকা।
    আগের বছর কোম্পানিটির প্রিমিয়াম আয় কমেছিল ৪২ কোটি ২৩ লাখ টাকা। আর লাইফ ফান্ডের পরিমাণ ৩ কোটি ১৬ লাখ টাকা।
    ‘জেড’ ক্যাটাগরির কোম্পানিটি ২০১২ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। এর অনুমোদিত ও পরিশোধিত মূলধন যথাক্রমে- ১০০ কোটি টাকা ও ৩৮ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। এ কোম্পানির ৩ কোটি ৮৮ লাখ ৮০ হাজার শেয়ারের মধ্যে ৩৪.৭৯ শতাংশ উদ্যোক্তা পরিচালক, ১৪.৬৬ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী এবং ৫০.৫৫ শতাংশ শেয়ার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে রয়েছে।

    Facebook Comments Box


    বাংলাদেশ সময়: ১২:৩৫ অপরাহ্ণ | সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি