বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৫ বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৪০ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩   |   প্রিন্ট   |   149 বার পঠিত

৪০ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৪০ কোম্পানি আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। কোম্পানিগুলো সমাপ্ত সময়ের প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কোম্পানিগুলো হচ্ছে-

শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির একত্রিত শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ১ টাকা ৩৯ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ২ টাকা ৪২ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৮ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৫ টাকা ৪৮ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ২৭ টাকা ৭৫ পয়সা।

কুইন সাউথ টেক্সটাইল মিলস লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিক (জানুয়ারি’২৩-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.১৮ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.৪৯ টাকা। এছাড়া নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ০.৭৪ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১.০৬ টাকা।

এদিকে তৃতীয় প্রান্তিক শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ১.৯৫ টাকা ও শেয়ার প্রতি নেট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫.৩১ টাকা।

অ্যাডভেন্ট ফার্মা লিমিটেড: পরিচালনা পর্ষদ তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ২৮ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ২৯ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯৮ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৯৭ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৪ টাকা ৯৪ পয়সা।

অলিম্পিক এক্সেসরিস লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির লোকসান বেড়েছে। তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান (ঊচঝ) হয়েছে ৯১ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস লোকসান ছিলো ২০ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ১১ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে লোকসান ছিলো ৩০ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১২ টাকা ২৭ পয়সা।

প্যাসিফিক ডেনিমস লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিক (জানুয়ারি’২৩-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.০৪ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.০৮ টাকা। এছাড়া নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ০.১২ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.৩২ টাকা।

এদিকে তৃতীয় প্রান্তিক শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ০.১৮ টাকা ও শেয়ার প্রতি নেট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৩.৫৭ টাকা।

কোহিনূর কেমিক্যাল কোম্পানি লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ৩ টাকা ৩৩ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৩ টাকা ২২ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮ টাকা ৯৭ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৭ টাকা ৭০ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৫৭ টাকা ১১ পয়সা।

এপেক্স ট্যানারি লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটি লাভ থেকে লোকসানে জড়িয়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান (ঊচঝ) হয়েছে ১ টাকা ৯২ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ১২ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান (ইপিএস) হয়েছে ৫ টাকা ৪০ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ২৮ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৫৭ টাকা ৪৮ পয়সা।

উসমানিয়া গ্লাস শীট ফ্যাক্টরী লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিক (জুলাই’২৩-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির লোকসান বেড়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৩.০২ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২.৩০ টাকা। এদিকে তৃতীয় প্রান্তিক শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ৩.৫১ টাকা (নেগেটিভ) ও শেয়ার প্রতি নেট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৮৯.১৫ টাকা।

এডিএন টেলিকম লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিক (জানুয়ারি’২৩-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.০২ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.৫৪ টাকা। এছাড়া নয় মাসে (জুলাই’২২-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৩.০৩ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১.৭৭ টাকা।

এদিকে তৃতীয় প্রান্তিক শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ১.২৯ টাকা ও শেয়ার প্রতি নেট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৯.৬২ টাকা।

স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ৪ টাকা ৮৩ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৪ টাকা ৮৩ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) আয় হয়েছে ১৬ টাকা ৮২ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ১৬ টাকা ০৩ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১২৩ টাকা ৩৩ পয়সা।

ফার ইস্ট নিটিং অ্যান্ড ডাইং ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ৫২ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৩৯ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) আয় হয়েছে ৯৭ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৮২ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৯ টাকা ৪৭ পয়সা।

আমান ফীড লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান (ঊচঝ) হয়েছে ৩৩ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ১৬ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) আয় হয়েছে ০৫ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ২ টাকা ০৫ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৩২ টাকা ২৬ পয়সা।

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটি লাভ থেকে লোকসানে জড়িয়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান (ঊচঝ) হয়েছে ১ টাকা ১৯ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৬২ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) আয় হয়েছে ০৮ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ২ টাকা ০৭ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৭৩ টাকা ২৫ পয়সা।

বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ২ টাকা ১৩ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ২ টাকা ৪৭ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির একত্রিত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮ টাকা ১৫ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৯ টাকা ৬০ পয়সা।

শাইন পুকুর সিরামিক্স লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ৬ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ১৭ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩১ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ২৭ পয়সা।

আমরা টেকনোলজিস লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ১৬ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ২৭ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির একত্রিত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৭ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে একত্রিত ইপিএস আয় ছিলো ১ টাকা ৩৮ পয়সা। এছাড়া শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ০.২৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নেট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিহয়েছে ২২.৮৩ টাকা।

বাংলাদেশ এক্সপোর্ট ইম্পোর্ট কোম্পানি লিমিটেডের (বেক্সিমকো): তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ১ টাকা ২২ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ৪ টাকা ৪১ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮ টাকা ৫৭ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ১২ টাকা ৮৯ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৯৫ টাকা ৯৯ পয়সা।

নর্দান ইসলামি ইন্সুরেন্স লিমিটেডের: প্রথম প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির (ইপিএস) আয় হয়েছে ৬৯ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান (ইপিএস) ছিল ৬৫ পয়সা।

এ সময়ে কোম্পানিটির একত্রিত ভাবে শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ২৩ টাকা ৮৫ পয়সা।

যমুনা অয়েল কোম্পানি লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ৫ টাকা ৫৪ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ২ টাকা ০২ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২০ টাকা ৮১ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে একত্রিত ইপিএস আয় ছিলো ১০ টাকা ৪৫ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৯৫ টাকা ৪৩ পয়সা।

রেনেটা লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ৫ টাকা ১৮ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ১১ টাকা ৭৮ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৩ টাকা ৪৭ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৩৫ টাকা ৩৫ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ২৬৬ টাকা ৯৪ পয়সা।

আরএন স্পিনিং মিলস লিমিটেড: আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির লোকসান কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.০২ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.০২ টাকা। অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.০৬ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.০৮ টাকা। এছাড়া শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ০.০২ টাকা (নেগেটিভ) এবং শেয়ার প্রতি নেট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ০.০০০৬ টাকা (নেগেটিভ)।

আনলিমা ইয়ার্ন ডাইং লিমিটেড: পরিচালনা পর্ষদ তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ১২ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে কোম্পানিটির লোকসান ইপিএস ছিলো ১১ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২০ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে লোকসান ইপিএস ছিলো ৩৪ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১০ টাকা ৫৪ পয়সা। আগের বছর ছিলো ১০ টাকা ৩৪ পয়সা।

এছাড়া আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি ক্যাশ ফ্লো করেছে ১২ পয়সা (নেগেটিভ)। যা আগের বছর ছিলো ৯৭ পয়সা।

ডেল্টা স্পিনার্স লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটি লাভ থেকে লোকসানে জড়িয়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান (ঊচঝ) হয়েছে ০৫ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ০১ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত লোকসান (ইপিএস) হয়েছে ০৪ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে সমন্বিত ইপিএস লোকসান ছিলো ০৪ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৩ টাকা ২১ পয়সা।

নেটওয়ার্কস লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ১.০১ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ০.৩৮ টাকা। অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির একত্রিত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.২৫ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১.২৩ টাকা। এছাড়া শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ২.৬১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নেট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩৭.৭২ টাকা।

এসআলম কোল্ড রোল্ড স্টিলস লিমিটেড: গত ৩১ মার্চ, ২০২৩ তারিখে সমাপ্ত তৃতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে। পাশাপাশি কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো নেগেটিভে নেমে এসেছে।

তিন প্রান্তিক মিলিয়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৬০ পয়সা। গতবছর একই সময়ে ৬২ পয়সা আয় হয়েছিল।

গত ৩১ মার্চ ২০২৩ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) ছিল ১৮ টাকা ৬৭ পয়সা।

এদিকে, কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ৪৩ টাকা ৪৫ পয়সা নেগেটিভে নেমে এসেছে। গত বছর এই সময়ে শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ২ টাকা ৬৯ পয়সা নেগেটিভ ছিল।

হাক্কানী পাল্প ও পেপার মিলস লিমিটেড: পরিচালনা পর্ষদ তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ১২ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে কোম্পানিটির লোকসান ইপিএস ছিলো ২০ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান (ইপিএস) হয়েছে ৭০ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে লোকসান ছিলো ১ টাকা ৬ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ২২ টাকা ৮৪ পয়সা।

সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড: পরিচালনা পর্ষদ তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ৬১ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ২১ পয়সা।

রহিমা ফুড করপোরেশন লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিক (৩১মার্চ’২০২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটি লোকসান থেকে মুনাফায় ফিরেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.১৩ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে লোকসান হয়েছিল ০.০৬ টাকা। এছাড়া শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ১.৩১ টাকা ও শেয়ার প্রতি নেট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) ১০.৪১ টাকা।

ক্রাউন সিমেন্ট পিএলসি: গত ৩১ মার্চ, ২০২৩ তারিখে সমাপ্ত তৃতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে।

চলতি হিসাববছরের তৃতীয় প্রান্তিকে ( জানুয়ারি’২৩-মার্চ’২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি ১ টাকা ৫২ পয়সা আয় হয়েছে। গত বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি ১৬ পয়সা আয় হয়েছিল।

অন্যদিকে তিন প্রান্তিক মিলিয়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২ টাকা ১৬ পয়সা। গতবছর একই সময়ে ৯১ পয়সা আয় হয়েছিল।

গত ৩১ মার্চ ২০২৩ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) ছিল ৫০ টাকা ৩৬ পয়সা।

ইস্টার্ন লুব্রিকেন্টস ব্লেন্ডার্স লিমিটেড: পরিচালনা পর্ষদ তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ৩ টাকা ৯৭ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ৩৫ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯ টাকা ৮৯ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে আয় ছিলো ২ টাকা ৮১ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৭৬ টাকা ৭২ পয়সা।

অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড: পরিচালনা পর্ষদ তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে। তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ২ টাকা ০৪ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ১ টাকা ৫১ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) আয় হয়েছে ৭ টাকা ৩০ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৫ টাকা ১২ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৪৯ টাকা ৬৩ পয়সা।

ফু-ওয়াং ফুডস লিমিটেড: পরিচালনা পর্ষদ তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ০৩ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ০২ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) আয় হয়েছে ১৭ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ১১ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৩ টাকা ৯৬ পয়সা।

ড্রাগন স্যুয়েটার অ্যান্ড স্পিনিং লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ১৫ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ৩৪ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) আয় হয়েছে ৫০ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ১ টাকা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৮ টাকা ৩ পয়সা।

বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ৪ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ৪ টাকা ৩ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) আয় হয়েছে ১২ টাকা ৭০ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ১০ টাকা ৮৮ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৭৯ টাকা ১৫ পয়সা।

শমরিতা হসপিটাল লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ১০ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ০১ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) আয় হয়েছে ৪৪ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ১ টাকা ২১ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৪৮ টাকা ৮৪ পয়সা।

ইনফর্মেশন সার্ভিসেস নেটওয়ার্ক লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ১১ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ১৭ পয়সা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) আয় হয়েছে ৩৮ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৪৩ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৩টাকা ১৯ পয়সা।

মীর আখতার হোসেন লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ঊচঝ) হয়েছে ০.২৭ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ০.২৪ টাকা। অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির একত্রিত শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৩১ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১.৭৮ টাকা। এছাড়া শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ৮.৪০ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নেট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৪৭.৮২ টাকা।

খুলনা পাওয়ার লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী তিন প্রান্তিক মিলে কোম্পানিটির লোকসান বেড়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান (ঊচঝ) হয়েছে ৬ পয়সা। কোম্পানিটির আগের বছরেও ৬ পয়সা লোকসান ছিলো।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৬ পয়সা। যা গত অর্থবছরের একই সময়ে লোকসান ইপিএস ছিলো ২৪ পয়সা। এ হিসেবে ৯ মাসে কোম্পানিটির লোকসান বেড়েছে।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৮ টাকা ৮১ পয়সা।

ইউনিক হোটেল এন্ড রিসোর্ট লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) অনীরিক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ৪ টাকা ৪ পয়সা। গত বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ৩ টাকা।

অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫ টাকা ৫৬ পয়সা। যা গত বছরের একই সময়ে ইপিএস আয় ছিলো ৩ টাকা ২৭ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৮৯ টাকা ৩ পয়সা। যা গত বছরের একই সময়ে ছিল ৮৪ টাকা ৯১ পয়সা।

এদিকে, কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) বেড়ে দাড়িয়েছে ৪ টাকা ২০ পয়সা। গত বছর এই সময়ে শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ছিল ২ টাকা ১১ পয়সা।

মুন্নু এগ্রো অ্যান্ড জেনারেল মেশিনারিজ লিমিটেড: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২৩) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি,২৩-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ঊচঝ) হয়েছে ০.৭১ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিলো ০.৬১ টাকা। অপরদিকে, ৯ মাসে (জুলাই,২২-মার্চ,২৩) কোম্পানিটির একত্রিত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.০৭ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১.৪৬ টাকা। এছাড়া শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ১.৭২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নেট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৭৫.০৭ টাকা।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ৮:৪৩ অপরাহ্ণ | রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।