বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৫ বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৯০ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩   |   প্রিন্ট   |   46 বার পঠিত

৯০ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ৯০ কোম্পানির ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ পর্যন্ত দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। ডিএসই সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

ড্রাগন সোয়েটার : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৩০ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৬৬ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৭৮ পয়সা।

বারাকা পাওয়ার : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৭৮ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৩৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৬৯ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা ৫ পয়সা।

আনলিমা ইয়ার্ন : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ৮ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ২৩ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১০ টাকা ৪২ পয়সা।

পাওয়ার গ্রিড : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৫ টাকা ৫১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার আয় (ইপিএস) ছিল ৯৩ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৩ টাকা ৯৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার আয় (ইপিএস) ছিল ২ টাকা ৭৫ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৩৮ টাকা ২০ পয়সা।

মবিল যমুনা : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল এক টাকা ৫০ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ৪৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৩ টাকা ৩৭ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩৯ টাকা ৭২ পয়সা।

ইন্দোাবংলা ফার্মা : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার আয় (ইপিএস) ছিল ১৭ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৫০ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৩ টাকা ৯৮ পয়সা।

বিডি থাই অ্যালুমিনিয়াম : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ১৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার আয় (ইপিএস) ছিল ১ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ২৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে আয় (ইপিএস) ছিল ১৩ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৮ টাকা ৭ পয়সা।

কাশেম ইন্ডাস্ট্রিজ : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ২৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার আয় (ইপিএস) ছিল ৯ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ২০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে আয় (ইপিএস) ছিল ১৯ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৭ টাকা ২৪ পয়সা।

তুংহাই নিটিং : দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে এক টাকা ১৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ১৪ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ লোকসানের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৬ টাকা ১৮ পয়সা।

ওরিয়ন ইনফিউশন : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২৬ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৯৮ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৩ টাকা ৩৭ পয়সা।

জেনেক্স ইনফৌসিস: দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ২২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল এক টাকা ২১ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৬১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২ টাকা ৪৯ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৫১ পয়সা।

ন্যাশনাল টি কোম্পানি : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৫ টাকা ২১ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৬৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৮ টাকা ৬৬ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪৯ টাকা ৭৩ পয়সা।

এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৫৩ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল এক টাকা ২ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪৯ টাকা ৫৩ পয়সা।

এসিআই লিমিটেড : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৯৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২ টাকা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসানহয়েছে এক টাকা ৭৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৫ টাকা ২৫ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১২৮ টাকা ২৯ পয়সা।

শাশা ডেনিমস : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৪৭ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৩৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৯১ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪০ টাকা ৫০ পয়সা।

সামিট পাওয়ার : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল এক টাকা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৫৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২ টাকা ২ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪০ টাকা ৫০ পয়সা।

সামিট পাওয়ার : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল এক টাকা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৫৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২ টাকা ২ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪০ টাকা ৫০ পয়সা।

আফতাব অটোমোবাইলস : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি লোকসান ছিল ২০ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি লোকসান ছিল ২৯ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৫১ টাকা ৯৬ পয়সা।

বাংলাদেশ স্টিল রি-রোলিং মিলস : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৮২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৩ টাকা ৮২ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৩ টাকা ৬৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৮ টাকা ১১ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৩৪ টাকা ২৯ পয়সা।

সায়হাম কটন : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৪৪ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৮৩ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩৭ টাকা ১২ পয়সা।

এএফসি এগ্রো : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৪ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৩৩ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৩২ পয়সা।

মেঘনা কনডেন্স মিল্ক : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৫৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল এক টাকা ৭৪ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে এক টাকা ১৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ৩ টাকা ৭০ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ লোকসান ৭১ টাকা ২৫ পয়সা।

মেঘনা পেট : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ৬ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ১২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ১২ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ লোকসান ৪ টাকা ৭ পয়সা।

জিকিউ বলপেন : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে এক টাকা ১৯পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ৭৮ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ২ টাকা ২৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল এক টাকা ৬৯পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মুল্য ১২০ টাকা ৮০ পয়সা।

দুলামিয়া কটন : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ২০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ২৭ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৩৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ৫৮ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ লোকসান ৩৮ টাকা ৮৮ পয়সা।

এসিআই ফরমুলেশন : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৪৯পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২ টাকা ৫৯পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৩ টাকা ৭১ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৬৫ টাকা ৮৮ পয়সা।

খান ব্রাদার্স : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে এক পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ৫ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ১২পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১১ টাকা ৯২ পয়সা।

ভিএফএস থ্রেড : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৪৯ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৮৮ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৯ টাকা ৭৬ পয়সা।

মোজাফ্ফর হোসেন স্পিনিং : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৭৩ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৯৭ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২০ টাকা ১৩ পয়সা।

রহিম টেক্সটাইল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ২ টাকা ৭১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৯৪পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৪ টাকা ৭১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল এক টাকা ৪৬ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩৩ টাকা ২৬ পয়সা।

জেমিনি সি ফুডস : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ৭১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২ টাকা ৭০ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭ টাকা ১০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৩ টাকা ৯৪ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৭ টাকা ১৮ পয়সা।

দেশ গার্মেন্টস : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২৫ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৪৯ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ১১ পয়সা।

সিলকো ফার্মা : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১৩ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৪৭ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২২ টাকা ৪৩ পয়সা।

ন্যাশনাল ফিড মিল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি লোকসান ছিল ৪ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি লোকসান ছিল এক পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১১ টাকা ৯০ পয়সা।

বিডি অটোকার্স : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১৪ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২৬ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৭ টাকা ১৩ পয়সা।

অ্যাকটিভ ফাইন : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি লোকসান ছিল ৬ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২১ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২২ টাকা ১৫ পয়সা।

সিলভা ফার্মা : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২২ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৫০ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৭ টাকা ১৯ পয়সা।

ডেল্টা স্পিনার্স : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে এক পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল এক পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে এক পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ৫ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৩ টাকা ২৬ পয়সা।

মালেক স্পিনিং : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৫৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল এক টাকা ১০ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল এক টাকা ২৯ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪৯ টাকা ৫৮ পয়সা।

স্কয়ার ফার্মা : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫ টাকা ৫৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৫ টাকা ২৪ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১১ টাকা ৯৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১০ টাকা ৮৮ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১১৮ টাকা ৫৩ পয়সা।

দেশবন্ধু পলিমার : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২০ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৩৩ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৩৯ পয়সা।

জুট স্পিানর্স: দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ১১ টাকা ৭৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ১০ টাকা ৮৩ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ২৪ টাকা ২১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ২১ টাকা ৬৮ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ লোকসান ৪১৫ টাকা ২৪ পয়সা।

এক্সোয়ার নিটের : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৬৩ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল এক টাকা ৩৭ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৬৪ টাকা ৭৬ পয়সা।

একমি ল্যাবরেটরিজ : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৫২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২ টাকা ৪০ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫ টাকা ৪৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৫ টাকা ১৭ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১০৪ টাকা ৯৫ পয়সা।

মুন্নু এগ্রো : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৪৯ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৩৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৮৫ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৭৪ টাকা ৩৬ পয়সা।

হামিদ ফেব্রিক্স : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১৫ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১৮ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩৮ টাকা ৫৬ পয়সা।

সিলকো ফার্মা : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১৩ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৪৭ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২২ টাকা ৪৪ পয়সা।

বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবলস কোম্পানি : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ৩৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৩ টাকা ৬৪ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮ টাকা ৭০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৬ টাকা ৮৫ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৭৫ টাকা ১৫ পয়সা।

ডরিন পাওয়ার : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে এক টাকা ২৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২ টাকা ৮ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৪ টাকা ৩৪ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪৭ টাকা ৬৮ পয়সা।

ফার কেমিক্যাল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১৩ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১৬ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১১ টাকা ৮৬ পয়সা।

জিবিবি পাওয়ার : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২৫ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৬০ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২০ টাকা ৫০ পয়সা।

সাফকো স্পিনিং : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে এক টাকা ৭১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ২ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ২ টাকা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৪ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৯ টাকা ২৫ পয়সা।

নাভানা সিএনজি : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৫ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১১ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩২ টাকা ৭৮ পয়সা।

আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৩৮ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৭৫ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২২ টাকা ১৮ পয়সা।

আনোয়ার গালভানাইজিং : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২ টাকা ৫০ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৭ টাকা ২৩ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৪ টাকা ৮৩ পয়সা।

প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৩৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল এক টাকা ৫২ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ৯৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২ টাকা ৯৭ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩২ টাকা ৫৪ পয়সা।

বিএসআরএম স্টিল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ১৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২ টাকা ৪৬ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৫ টাকা ৩৪ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৬৫ টাকা ৬৩ পয়সা।

এমএল ডাইং : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১১ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৩৫ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৩ টাকা ৩৪ পয়সা।

মতিন স্পিনিং : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৮১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২ টাকা ৮৬ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ৮৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৫ টাকা ৫৪ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৫৯ টাকা ৫২ পয়সা।

জেএমআই সিরিঞ্জ : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল এক টাকা ৫০ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২ টাকা ২৩ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৯২ টাকা ৩৩ পয়সা।

ওয়াটা কেমিক্যাল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল এক টাকা ৫১ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২ টাকা ৫২ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৬০ টাকা ৩৩ পয়সা।

লুবরেফ বাংলাদেশ : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৪৯ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৫০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল এক টাকা ২ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩৮ টাকা।

ইজেনারেশন : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৩৭ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৭৭ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা ৮৫ পয়সা।

সায়হাম টেক্সটাইল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৬২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৪১ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৩১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ৭০ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪৩ টাকা ১৬ পয়সা।

মুন্নু সিরামিকস : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৪৩ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৬৪ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৮২ টাকা ৬৪ পয়সা।

ওরিয়ন ফার্মা : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ১৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল এক টাকা ৭২ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৯১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২ টাক ২ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৯১ টাকা ৭৫ পয়সা।

স্কয়ার ফার্মা : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫ টাকা ৭৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৫ টাকা ২৪ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১১ টাকা ৯৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১০ টাকা ৮৮ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১১৮ টাকা ৫৩ পয়সা।

আরডি ফুড : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৩৯ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৭৯ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৫ টাকা ৮৬ পয়সা।

জেনারেশন নেক্সট : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৪ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি লোকসান ছিল এক পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১১ টাকা ৮৪ পয়সা।

বিডিকম : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৭৫ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৫ টাকা ৫২ পয়সা।

মেট্রো স্পিনিং : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৭ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৪৫ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৮৫ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২০ টাকা ৯৭ পয়সা।

অ্যাডভেন্ট ফার্মা : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২৮ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৬৭ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৪ টাকা ৬৫ পয়সা।

এপেক্স ট্যানারি : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে এক টাকা ৯৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৭ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৩ টাকা ৪৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১৬ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৫৯ টাকা ৬ পয়সা।

আইটিসি : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৫০ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৮৪ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৭ টাকা ৬৪ পয়সা।

ম্যাকসন্স স্পিনিং : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল এক টাকা ১ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১ টাকা ৭৬ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা ৭৯ পয়সা।

কোহিনুর কেমিক্যাল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ৫৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৩ টাকা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬ টাকা ৭৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৫ টাকা ৩৭ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৬৪ টাকা ৮২ পয়সা।

খুলনা প্রিন্টিং : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল এক টাকা ৯৬ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ১১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ২ টাকা ৯৯পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য পরিমাণ দাঁড়িয়েছে এক টাকা ৯৮ পয়সা।

প্যাসিফিক ডেনিমস : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১০ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২২ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৩ টাকা ৬৬ পয়সা।

স্টাইল ক্র্যাফট : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে এক টাকা ১৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ২ টাকা ৩৭ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে এক টাকা ১০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসানের পরিমাণ ছিল ৪ টাকা ২০ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৫ টাকা ৯৭ পয়সা।

ডেফোডিল কম্পিউটার : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১৮ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৪১ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৩৬ পয়সা।

কেডিএস এক্সেসরিজ : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৬৩ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২ টাকা ৩৫ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৫ টাকা ১২ পয়সা।

স্কয়ার টেক্সটাইল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২ টাকা ৩৮ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৮২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৪ টাকা ৬৮ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪৫ টাকা ৯৫ পয়সা।

ইস্টার্ন ক্যাবলস : দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার লোকসান হয়েছিল এক টাকা ৮১ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩৪৪ টাকা ৩৪ পয়সা।

সি পার্ল হোটেল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ২৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৮১ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টকা ৫০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছিল ৭২ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৪ টাকা ১৭ পয়সা।

কুইন সাউথ টেক্সটাইল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২৭ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৬ পয়সা। গত বছর একই সময়ে লোকসানের যার পরিমাণ ছিল ৫৭ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৩ টাকা ৬৪ পয়সা।

যমুনা অয়েল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯ টাকা ২৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৪ টাকা ৭৬ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৫ টাকা ২৭ পযসা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৮ টাকা ৪৩ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২০১ টাকা ৮৯ পয়সা।

ওরিয়ন ইনফিউশন : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪০ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২৬ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে এক টাকা ৩ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার আয় (ইপিএস) ছিল ৯৮ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৩ টাকা ৩৭ পয়সা।

জেএমআই হসপিটাল : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৬৬ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৫ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল এক টাকা ২৯ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩২ পয়সা।

একমি পেস্টিসাইডস : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৮ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৫২ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৯৯ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ১৮ পয়সা।

তসরিফা ইন্ডাস্ট্রিজ : দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩২ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২৭ পয়সা।
এদিকে, প্রথম দুই প্রান্তিক মিলিয়ে তথা ৬ মাসে (জুলাই’২২-ডিসেম্বর’২২) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৯ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৪৩ পয়সা।
গত ৩১ ডিসেম্বর, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩০ টাকা ২৯ পয়সা।

 

 

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ২:৩৬ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।