• প্রগতি ইন্স্যুরেন্সের এজিএমে ৩০ শতাংশ লভ্যাংশ অনুমোদন

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৬ আগস্ট ২০২১ | ২:৫৩ অপরাহ্ণ

    প্রগতি ইন্স্যুরেন্সের এজিএমে ৩০ শতাংশ লভ্যাংশ অনুমোদন
    apps

    পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্রগতি ইন্স্যুরেন্সের ৩৫তম বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৬ আগস্ট বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন কোম্পানি চেয়ারম্যান সৈয়দ এম আলতাফ হোসেন। সভায় উপস্থিত ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান তাবিথ মোহাম্মদ আউয়াল, পরিচালনা পর্ষদের পরিচালক আলহাজ্ব খলিলুর রহমান, আব্দুল আউয়াল মিন্টু, নাসির লতিফ, মোহাম্মদ আব্দুল আউয়াল, নিগার জাহান চৌধুরী, স্বতন্ত্র পরিচালক স্যান্তোস শর্মা মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. রেজাউল করিম, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ ও সংশ্লিষ্ট বিনিয়োগকারীরা উপস্থিত ছিলেন।

    সভা সঞ্চলনা করেন কোম্পানি সচিব সৈয়দ আনিসুল হক (সিসি) ।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    সভায় ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ সমাপ্ত বছরের বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদনের উপর আলোচনা রাখেন পরিচালনা পর্ষদ ও বিনিয়োগকারীরা। এতে দেখা যায়, আলোচ্য বছরে কোম্পানির গ্রস প্রিমিয়াম কমে গিয়ে ২২১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা, যা ২০১৯ সালে ছিল ২৪০ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। এর মধ্যে নিট প্রিমিয়ামের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৯৮ কোটি টাকা, যা আগের বছর ছিল ১০২ কোটি ৪৫ লাখ টাকা। তবে সমাপ্ত বছরে প্রতিষ্ঠানটি অবলিখন মুনাফা অর্জনে সাফল্য দেখিয়েছে। আলোচ্য ২০২০ সালে অবলিখন মুনাফা দাঁড়িয়েছে ৩২ কোটি টাকা, যা আগের বছর ছিল ২২ কোটি ৮৭ লাখ টাকা। পাশাপাশি দাবির পরিশোধের পরিমাণ আগের চেয়ে কিছুটা কমেছে। আলোচ্য বছরে দাবি পরিশোধ করেছে ১২ কোটি ৭২ লাখ টাকা, যা আগের বছর ছিল ১৩ কোটি ৮৪ লাখ টাকা।

    আবার মোট সম্পদ ও শেয়ারহোল্ডার ইক্যুয়িটির ক্ষেত্রেও আগের বছরের তুলনায় অনেকাংশে এগিয়ে গেছে। আলোচ্য বছরে মোট সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫১৪ কোটি ৪৪ লাখ টাকা, যা ২০১৯ সালে ছিল ৪৬৭ কোটি ২৪লাখ টাকা এবং শেয়ারহোল্ডার ইক্যুয়িটির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৫০ কোটি ৯৮ লাখ টাকায়, যা আগের বছর ছিল ৩৩২ কোটি ৬ লাখ টাকা। একবছরে প্রতিষ্ঠানটির মোট সম্পদ ও শেয়ারহোল্ডার ইক্যুয়িটি বেড়েছে যথাক্রমে ৪৭ কোটি ২০ লাখ টাকা এবং ২৮ কোটি ৯২ লাখ টাকার বেশি।


    বিদায়ী বছরে এমন ব্যবসায়িক ধারাবাহিকতায় প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভি) ২০১৯ সালের তুলনায় বেড়েছে। আলোচ্য বছরে ইপিএস দাঁড়িয়েছে ৪.০৭ টাকা, যা আগের বছর ছিল ৩.১৯ টাকা এবং এনএভি দাঁড়িয়েছে ৫৩.৫১ টাকা, যা ২০১৯ সালে ছিল ৫০.৬৩ টাকা। বছর সমাপান্তে বিনিয়োগকারীদের জন্য ৩০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করে কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ। বার্ষিক সাধারণ সভার অন্যান্য কর্মসূচির সাথে যা বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদন লাভ করে।

     

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ২:৫৩ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২৬ আগস্ট ২০২১

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি