সোমবার ১৭ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩ আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রি-পেইড মিটার নিয়ে আতঙ্কের কারণ নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বৃহস্পতিবার, ১৮ মে ২০২৩   |   প্রিন্ট   |   110 বার পঠিত

প্রি-পেইড মিটার নিয়ে আতঙ্কের কারণ নেই

ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা বিদ্যুতের গ্রাহকরা পেতে শুরু করেছেন। রাজধানীসহ বিভাগীয় শহরের বেশ কিছু এলাকায় ইতিমধ্যে ডিজিটাল পদ্ধতিতে বৈদুতের বিল এখন প্রিপেইড মিটারে পরিশোধের সুবিধা চালু হয়েছে।

ফলে বিদ্যুতের বিল পরিশোধের জন্য সংশ্লিষ্ট বিদ্যুৎ অফিসে যেতে হয় না। বাসায় থেকে কিংবা যে কোন স্থানে বসেই ‘বিকাশ অ্যাকউন্টের’ মাধ্যমে বিদ্যুতের বিল পরিশোধ করা যাচ্ছে। আগে ‘এনালগ’ বা প্রচলিত পদ্ধতিতে বিদ্যুতের বিল পরিশোধ করতে বিদ্যুতের সংশ্লিষ্ট অফিসে লাইন দিয়েও বিলের ত্রুটি/ বিচ্যুতি সংশোধন করতে গ্রাহকদের অনেক হয়রানীর শিকার হতে হতো।

এছাড়াও অনেক ভুতুড়ে বিল ধরিয়ে দেওয়া হতো। কিন্তু ডিজিটাল পদ্ধতিতে ‘প্রিপেইড মিটার’ চালুর পর এখন আর ওই ধরনের হয়রানী কিংবা অতিরিক্ত বিদ্যুতের বিল আসার অভিযোগ কমে আসছে। গ্রাহকের ব্যবহারের উপর নির্ভর করে তার বিদ্যুৎবিল কত হবে।

 

এক সময় গ্রহক এ বিল পরিশোধে ব্যাপক হয়রানির শিকার হতো। অনেকের ধারণা যে যদি রাতে কিংবা শুক্রবার বা অন্যকোন ছুটির দিন প্রিÑপ্রেইড কার্ডের ব্যালেন্স শেষ হয়ে যায় তখন কি বিদ্যুত সংযোগ বন্ধ হয়ে যাবে? তাদের উদ্দেশ্যে বলবো আপনারা আতঙ্কিত হবেন না। কারণ ডিজিটাল মিটারে আগে থেকে এটি সেট করা থাকে ফ্রি মুড হিসেবে। যখন আপনি আপনার মিটারটি পরবর্তী সময়ে রিচার্জ করবেন তখন পূর্বের ব্যবহৃত ইউনিট অনুযায়ী ব্যালেন্স সমন্বয় করা হবে। তাই এখন সব থেকে নিরাপদ ও সহজ ‘প্রিÑপেইড মিটার’। যেকোন স্থান থেকে ব্যালেন্স রিচার্জ করায় সময় কম লাগে।

সূত্র মতে, একনজরে দেখা যাক ‘প্রিপেইড মিটারের আওতায় কি ধরনের সুবিধা গ্রহকরা পাচ্ছেন, প্রথম বার ১০০০ টাকা রিচার্জে গ্রাহক পাবে ৭৯২ টাকা। ১. মিটার পরীক্ষার সময় প্রথমেই ১০০ টাকা মিটারের সাথে দেওয়া হয়েছিল। তাই প্রথম ১ বার ১০০ টাকা কাটবে। ২. ডিমান্ড চার্জ আগে প্রতি কিলোওয়াট লোডের জন্য ছিল ২৫ টাকা এখন ডিজিটাল মিটারের ক্ষেত্রে ১৫ টাকা (প্রতি মাসে এক বার করে কাটবে)। ৩. মিটার ভাড়া ৪০ টাকা (প্রতি মাসে এক বার)। ৪. সরকারি ভ্যাট আগেও ছিল ৫% এখনো ৫%। ৫. সার্ভিস চার্জ ১০ টাকা (প্রতি মাসে একবার)।

এই সব কারণে ডিজিটাল মিটার প্রথম ১০০০ টাকার কার্ড রিচার্জে ১০০০ টাকার স্থানে ৭৯২ টাকা দেখায় কিন্তু ওইম মাসেই যদি আবার ১০০০ টাকা রিচার্জ করেন তাহলে শুধু সরকারি ভ্যাট ৫% টাকা কাটার পর বাকি টাকা মিটারে রিচার্জ হবে। তাই ডিজিটাল মিটারের গ্রাহকদের আতঙ্কিত হওয়ার কোন কারণ নাই।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ৬:৩৩ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৮ মে ২০২৩

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।