• বীমা প্রতিষ্ঠানগুলোকে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জন করতে হবে-শেখ মোহাম্মদ সলীম উল্লাহ, সচিব আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ, অর্থমন্ত্রণালয়

    বিবিএ নিউজ.নেট | ১৬ নভেম্বর ২০২১ | ৭:৩৯ অপরাহ্ণ

    বীমা প্রতিষ্ঠানগুলোকে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জন করতে হবে-শেখ মোহাম্মদ সলীম উল্লাহ, সচিব আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ, অর্থমন্ত্রণালয়
    apps

    দেশের সাধারণ মানুষের কষ্টার্জিত অর্থে বীমা কোম্পানি পরিচালিত হচ্ছে, এটা স্মরণ করিয়ে দিয়ে খাত সংশ্লিষ্টদের সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জণ করার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব শেখ মোহাম্মদ সলীম উল্লাহ। সম্প্রতি কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত বীমা খাতের ক্যামেলকোদের দুইদিন ব্যাপী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই আহ্বান জানান।

    আইডিআরএ চেয়ারম্যান ড. এম মোশাররফ হোসেনের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন আব্দুল্ল্যাহ হারুন পাশা, অতিরিক্ত সচিব, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ; মো. মাসুদ বিশ্বাস, বিএফআইইউ চীফ (চলতি দায়িত্ব); মঈনুল ইসলাম, সদস্য (প্রশাসন) আইডিআরএ; বিএম ইউসুফ আলী, প্রেসিডেন্ট, বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স ফোরাম (বিআইএফ) এবং মো. মামুনুর রশীদ, জেলা প্রশাসক (কক্সবাজার)। এছাড়া আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ, আইডিআরএ, ব্যাংলাদেশ ব্যাংক, বিএফআইইউ এবং বিভিন্ন বীমা কোম্পানির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।
    ক্যামেলকোদের উদ্দেশ্যে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব বলেন,আপনারা দেশের সাধারণ মানুষের কাছ থেকে ছোট ছোট পুঁজি নিয়ে সেগুলোকে বড় পুঁজি হিসেবে বিনিয়োগ করেন।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    সাধারণ মানুষের টাকায় উৎপাদন এবং বাজারজাতের কাজটি ভালভাবে করুন। বীমা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি হিসেবে আপনাদেরকে এই বিষয়টি নিয়ে ভাবতে হবে। আপনারা কি পাচ্ছেন, আর যাদের সঞ্চিত অর্থ আপনারা বিনিয়োগ করছেন, তাদের জন্য কি করছেন। বিনিয়োগকারীদের কি রির্টান দিচ্ছেন। তাদের আর্থিক পরিবর্তন কতটুকু হচ্ছে। আপনারা বীমা খাতের ব্যবসায়ীরা সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জন করুন। মানুষের আস্থার জায়গাটা তৈরি করুন।

    তিনি বলেন, বাংলাদেশে ৮১টি বীমা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এরমধ্যে অনেকের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ রয়েছে। অনেকের বিরুদ্ধে শোনা যায়, তারা বীমার দাবী সময় মতো পরিশোধ করে না। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল সোনার বাংলা গড়ার। কিন্তু তিনি সোনার বাংলা গড়ার সেই সুযোগটুকু পাননি। বর্তমানে তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সোনার বাংলা গড়ার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তার কাজ যেন ব্যর্থতায় পর্যবসিত না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।


    বীমা খাতে মানিলন্ডারিংয়ের বিষয়ে সতর্ক থাকার আহবান জানিয়ে শেখ সলীম উল্লাহ বলেন, মানিলন্ডারিং শুধুমাত্র অর্থ পাচারই নয়। ঘুষ, দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাৎ, জালিয়াতি, অবৈধ উপায়ে অর্জিত অর্থ, অবৈধভাবে মানব পাচার ও অর্থ পাচারসহ আরো অনেক অভিযোগ মিলেই মানিলন্ডারিং হয়। আর মানিলন্ডারিং ও সন্ত্রাসী কাজে অবৈধ অর্থ ব্যবহার প্রতিরোধ করার জন্যই মানিলন্ডারিং আইন এবং বিধি প্রণয়ন করা হয়েছে। আপনাদেরকে ওইসব বিষয়ে সর্তক থাকতে হবে।

    প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত সোনার বাংলা গড়ার কাজে হাত দিয়েছেন উল্লেখ করে প্রধান অতিথি বলেন, বিশ্বের সাথে তালমিলিয়ে বাংলাদেশ আজ অনেক এগিয়ে চলছে। চলছে দিনবদলে পালা। বাংলাদেশ এখন ডিজিটাল হয়েছে। বিশ্বের অর্থনীতির সূচকে বাংলাদেশ আজ ৪০তম স্থান অর্জন করেছে। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা দিয়েছেন ২০৩০ সালে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হবে। আর ২০৪১ সালে বাংলাদেশ উন্নত বিশ্বে প্রবেশ করবে। এছাড়া বর্তমানে মানুষের জীবনমানে পরিবর্তন এসেছে এবং মানুষ এখন আগের চেয়ে অনেক ভাল আছে বলেই জানান আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের এই সচিব।

     

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ৭:৩৯ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১৬ নভেম্বর ২০২১

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি