শনিবার ১৮ মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ব্যাংকের মত মুনাফা বাড়ানোর সুযোগ পাচ্ছে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো

  |   মঙ্গলবার, ২১ ডিসেম্বর ২০২১   |   প্রিন্ট   |   125 বার পঠিত

ব্যাংকের মত মুনাফা বাড়ানোর সুযোগ পাচ্ছে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো

নিজস্ব প্রতিবেদক : ব্যাংকের মতো মুনাফা বাড়ানোর সুযোগ দেয়া হয়েছে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকেও (এনবিএফআই)। ব্যাংকের ন্যায় আর্থিক প্রতিষ্ঠানও ঋণের ২৫ শতাংশ আদায় হলে পুরো সুদ আয় খাতে দেখাতে পারবে। গত রোববার এই সুযোগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর আাগে গত মঙ্গলবার ব্যাংকগুলোকে একই সুযোগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর ফলে চলতি বছর শেষে ব্যাংকের ন্যায় এনবিএফআইগুলোর মুনাফা বাড়বে বলে মনে করছেন খাতসংশ্লিষ্টরা।

প্রজ্ঞাপনে বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, এনবিএফআইগুলো কোনো একজন গ্রাহকের কাছ থেকে ২০২১ সালে যে ঋণ আদায়ের লক্ষ্য ঠিক করেছে, তার ২৫ শতাংশ যদি আদায় করতে পারে, তাহলে ওই গ্রাহকের কাছ থেকে সুদ বাবদ পাওয়া অর্থের পুরোটা আয় হিসাবে দেখাতে পারবে।

বিদ্যমান নিয়মে কোনো গ্রাহকের কাছ থেকে লক্ষ্যের শতভাগ ঋণ আদায় হলেই তখন পুরো সুদকে আয় হিসাবে দেখাতে পারে।
খাতসংশ্লিষ্টরা বলছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের এই সিদ্ধান্তের ফলে চলতি বছর শেষে এনবিএফআইগুলোর মুনাফা অনেকটা বেড়ে যেতে পারে। তবে এই সুবিধা নিতে বাড়তি ২ শতাংশ নিরাপত্তা সঞ্চিতি সংরক্ষণ করতে বলেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

পাশাপাশি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদন নিয়ে যেসব ঋণ নিয়মিত/পুনর্গঠন করা হয়েছে, তা কেবল নগদ আদায় হলেই সেই সুদ আয় খাতে নেওয়া যাবে। চলতি বছরের বার্ষিক আর্থিক হিসাব চূড়ান্তের সময় এনবিএফআইগুলোকে এই নির্দেশনা মানতে হবে। এনবিএফআইগুলোর আর্থিক বছর শেষ হয় ডিসেম্বর মাসে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত একজন গ্রাহকের যে পরিমাণ ঋণ পরিশোধের সূচি ছিল, তার ২৫ শতাংশ পরিশোধ করলে ওই গ্রাহককে আর খেলাপি করা যাবে না। পাশাপাশি ওই গ্রাহকের কাছ থেকে যে পরিমাণ সুদ পাওয়া যাবে, তা এনবিএফআইগুলো আয় হিসাবে দেখাতে পারবে।

তবে ঋণ আদায়ের নির্ধারিত লক্ষ্যের ২৫ শতাংশ পর্যন্ত আদায় না হলে সেই গ্রাহককে ঋণখেলাপি হিসেবে চিহ্নিত করতে হবে, সুদও আয় খাতে নেওয়া যাবে না। এ ছাড়া এই সুবিধা নেওয়া ঋণের ক্ষেত্রে ব্যাংকগুলোকে অতিরিক্ত ২ শতাংশ সাধারণ নিরাপত্তা সঞ্চিতি রাখতে হবে। নিরাপত্তা সঞ্চিতি রাখতে হয় ব্যাংকের মুনাফা থেকে।

এনবিএফআইগুলোর প্রধান আর্থিক কর্মকর্তারা (সিএফও) বলছেন, নতুন নির্দেশনার ফলে মুনাফা করা সহজ হলো। সাধারণত ঋণের পুরো টাকা আদায় না হলে তা খেলাপি হয়ে যায়। সুদও আয় খাতে নেওয়া যায় না। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এই নির্দেশনার মাধ্যমে মুনাফা বাড়ানোর সুযোগ পেল আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো।

বর্তমানে দেশে ৩৪টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান আছে। এর মধ্যে প্রায় ১০টি প্রতিষ্ঠান গ্রাহকদের টাকা ফেরত দিতে পারছে না। এর মধ্যেই তাদের এমন ছাড় দিল বাংলাদেশ ব্যাংক।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ১২:২০ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২১ ডিসেম্বর ২০২১

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।