• অসৎ কর্মকর্তাদের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকে স্থান নেই: অর্থমন্ত্রী

    বিবিএনিউজ.নেট | ১৩ মার্চ ২০১৯ | ৫:৩৩ অপরাহ্ণ

    অসৎ কর্মকর্তাদের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকে স্থান নেই: অর্থমন্ত্রী
    apps

    অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, অসৎ ব্যাংক কর্মকর্তাদের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকে কোনো স্থান নেই। অসৎ ব্যবসায়ীদের সহায়তাকারী ব্যাংক কর্মকর্তাদেরও খুঁজে বের করা হবে। কারণ অসাধু ব্যবসায়ীরা ব্যাংকের টাকা নিয়ে ভুল জায়গায় ব্যবহার করছেন। টাকা ফেরত দিচ্ছেন না।

    বুধবার রাজধানীর ফার্মগেটে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (কেআইবি) মিলনায়তনে জনতা ব্যাংকের বার্ষিক সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান লুনা সামসুদ্দোহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. ফজলে কবির, অর্থ সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

    অর্থমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে সরকারের সবচেয়ে দুর্বল জায়গা ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি চলতি অর্থবছরে জিডিপির (মোট দেশজ উৎপাদন) প্রবৃদ্ধি ৮ দশমিক ১৫ থেকে ২৫ শতাংশ হবে। এখন পর্যন্ত জিডিপির প্রবৃদ্ধি ৮ দশমিক ১ শতাংশ রয়েছে।’


    দুর্নীতি প্রতিরোধে কর্মকর্তাদের শপথ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি আরও একদিন আসবো। সেই দিন সব ব্যাংক কর্মকর্তাকে শপথ পড়াবো। নিজে দুর্নীতি করবো না, কাউকে করতেও দেবো না। যারা শপথ পড়তে পারবেন না তারা শপথ অনুষ্ঠানে আসবেন না।’

    তিনি আরও বলেন, ‘সরকার দুর্নীতি শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনতে কাজ করছে। আমরা দুর্নীতির সঙ্গে জড়িতদের ধরবো। তবে আমরা কোনও ব্যবসায়ীকে জেলে পাঠাবো না, যদি তারা স্বীকার করে এবং আত্মসাৎ করা অর্থ ফেরত দেয়। আর আসাধু ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ব্যাংকের কর্মকর্তারাও রয়েছে। তাদেরও ধরা হবে।’

    অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমার কাছে অনেক লোক অনেক তদবির নিয়ে এসেছেন, আমি সেই তদবির শুনিনি। আমি বলেছি এসব তদবিরে কাজ হবে না। যোগ্য লোকদের ব্যাংকে পাঠানো হবে।’

    অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, ‘অটোমেশন পদ্ধতি বিশ্বকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। ব্যাংকগুলোকে অটোমেশন করতে হবে। প্রতিদিন বিশ্বজুড়ে ২ লাখ ৭৩ হাজার কোটি মানুষ ই-মেইল চালাচালি করে এবং নেট ব্রাউজ করে ৪ হাজার ২০০ কোটি মানুষ।’

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ৫:৩৩ অপরাহ্ণ | বুধবার, ১৩ মার্চ ২০১৯

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    রডের দাম বাড়ছে

    ১৩ জানুয়ারি ২০১৯

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি