রবিবার ১৯ মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কাঁচা মরিচের দাম একদিনে কমলো ৩০০ টাকা

  |   সোমবার, ০৩ জুলাই ২০২৩   |   প্রিন্ট   |   203 বার পঠিত

কাঁচা মরিচের দাম একদিনে কমলো ৩০০ টাকা

কমতে শুরু করেছে কাঁচা মরিচের ঝাঁজ। ভারত থেকে আমদানি শুরুর একদিনের ব্যবধানে রাজধানীর বাজারে কেজিপ্রতি কাঁচা মরিচের দাম কমেছে ২৫০ থেকে ৩০০ টাকা।

সোমবার (৩ জুলাই) সকালে রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, কাঁচা মরিচ খুচরায় কেজি বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ২৪০ টাকা। কোথাও কোথাও ২৬০ টাকা কেজিও বিক্রি হচ্ছে। অথচ আগের দিন রোববারও (২ জুলাই) রাজধানীতে ৫০০ টাকা থেকে ৬০০ টাকা কেজিতে কাঁচামরিচ বিক্রি হয়েছে। তবে পাইকারি বাজারে কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা কেজিতে।

 

ব্যবসায়ীরা বলেন, টানা বৃষ্টির কারণে বাজারে চাহিদার তুলনায় কাঁচা মরিচের আমদানি কম ছিল। এ কারণে কাঁচামরিচের দাম বেড়েছে। তবে খুচরা ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের অভিযোগ, টানা বৃষ্টির কারণ দেখিয়ে মুনাফালোভী ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দাম বাড়িয়ে বাজারকে অস্থিতিশীল করে তুলেছেন।

রামপুরা বাজারের ব্যবসায়ী সাজ্জাদুর রহমান  বলেন, মরিচ আমদানির খবরেই দাম কমতে শুরু করেছে। কারওয়ান বাজার থেকে আজকে আমার মরিচ কেনা পড়েছে ১৮০ টাকা কেজি। বিক্রি করছি ২২০ টাকা কেজি। আর আধা কেজি, কিংবা ২৫০ গ্রাম নিলে বিক্রি করছি একটু বেশি।

তিনি বলেন, ২৫০ গ্রাম কাঁচা মরিচ বিক্রি করছি ৬০ টাকা। আর আধা কেজি এক ১১০ টাকা। এতদিন সিন্ডিকেটের মাধ্যমে মরিচের দাম বাড়ানো হচ্ছিল। কিন্তু সরকার যখনি ভারত থেকে আমদানি শুরু করেছে, এখন বাজারে দাম কমতে শুরু করেছে।

পাশের দোকানদার সজিব হোসেন বলেন, আমার আজকের কেনা দাম ২০০ টাকা। বিক্রি করছি ২৪০ থেকে ২৬০ টাকা। তিনি বলেন, কেউ যদি ২৫০ গ্রাম মরিচ নেন তাহলে বিক্রি করছি ৭০ টাকা। আর কেজি নিলে বিক্রি করছি ২৪০ টাকা।

সিন্ডিকেটের মাধ্যমে মরিচের দাম বাড়িয়েছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ভারত থেকে কাঁচা মরিচ আমদানি হয়েছে, এখন তারা দাম কমাতে শুরু করেছে। মরিচের দাম আরও কমবে।

মালিবাগ বাজারে আসা ক্রেতা রিপন লাল ঘোষ বলেন, মরিচের দাম কমতে শুরু করেছে। আজকে ২৫০ গ্রাম মরিচ কিনেছি ৬০ টাকা দিয়ে। আপাতত আর কিনব না, কমলে তারপর কিনব।

তিনি অভিযোগ করেন, দেশেই পর্যাপ্ত পরিমাণে মরিচ রয়েছে, তারপরও কিন্তু ব্যবসায়ীরা কারসাজির মাধ্যমে কাঁচা মরিচের দাম বাড়িয়েছে। তা না হলে এক দিনের ব্যবধানে ৫০০ টাকা থেকে ২০০ টাকা কেজিতে চলে আসে কীভাবে?

কারওয়ান বাজারের ব্যবসায়ী ফুয়াদ হোসেন টিটো বলেন, এতদিন মরিচের সংকট ছিল, তাই মরিচের কেজি পাইকারি বিক্রি করেছি ৪০০ টাকা। গতকাল ভারতের মরিচ বাজারে আসা শুরু করেছে, তাই দাম কমতে শুরু করেছে। আজকে বিক্রি করছি ২০০ টাকার নিচে। কাল-পরশু আরও কমতে পারে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি দেশের বাজারে কাঁচা মরিচের দাম অস্বাভাবিক হারে বেড়ে যায়, রাজধানীর কোথাও কোথাও ৬০০ টাকা কেজি বিক্রি হয় রান্নার গুরুত্বপূর্ণ এ উপকরণটি। তবে দেশের কোনো এলাকায় হাজার টাকা কেজিতে কাঁচা মরিচ বিক্রির খবরও পাওয়া যায়। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকার ভারত থেকে কাঁচা মরিচ আমদানির সিদ্ধান্ত নেয়।

কৃষি মন্ত্রণালয় জানায়, রোববার বিকেল পর্যন্ত ভারত থেকে মোট ৯৩ টন মরিচ আমদানি করা হয়েছে। আরও ৩৬ হাজার ৮৩০ টন কাঁচা মরিচ আমদানির অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এগুলো আসবে ভারত থেকে।

Facebook Comments Box
(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Posted ৪:৪৪ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০৩ জুলাই ২০২৩

bankbimaarthonity.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মাদ মুনীরুজ্জামান
নিউজরুম:

মোবাইল: ০১৭১৫-০৭৬৫৯০, ০১৮৪২-০১২১৫১

ফোন: ০২-৮৩০০৭৭৩-৫, ই-মেইল: bankbima1@gmail.com

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: পিএইচপি টাওয়ার, ১০৭/২, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০।