৯ম রমজান

ইফতারের সময় বাকি আছে

00 ঘন্টা
00 মিনিট
00 সেকেন্ড

ইফতারের সময় হয়েছে।
ইফতার করুন।

শুধুমাত্র ঢাকা জেলার জন্য প্রযোজ্য

সেহরির সময় বাকি আছে

00 ঘন্টা
00 মিনিট
00 সেকেন্ড

শুধুমাত্র ঢাকা জেলার জন্য প্রযোজ্য

Advertisement
  • বেসিক ব্যাংক নিয়ে ২৯ সুপারিশ

    খেলাপি ঋণ আদায়ে দুর্বলতা কাম্য নয়

    বিবিএনিউজ.নেট | ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | ১১:০০ পূর্বাহ্ণ

    খেলাপি ঋণ আদায়ে দুর্বলতা কাম্য নয়
    apps

    আইনি ব্যবস্থা বা সমঝোতার মাধ্যমে বেসিক ব্যাংকের শীর্ষ ২০ ঋণখেলাপির কাছ থেকে ২ হাজার ১৬২ কোটি টাকা আদায়ের সুপারিশ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। পাশাপাশি ব্যাংকটিতে ৭ হাজার ৮৯৫ কোটি টাকার শ্রেণিকৃত ঋণ বৃদ্ধির কারণ চিহ্নিত করতে বলা হয়। এসব ঋণ আদায়ের জন্য গ্রহণ করতে বলা হয়েছে কর্মপরিকল্পনা। এছাড়া আর্থিক অনিয়মের জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে দ্রæত শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিশ্চিতসহ ২৯ দফা সুপারিশ করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। বেসিক ব্যাংকে দুর্নীতি বন্ধ ও সার্বিক অবস্থা উন্নয়নে এসব সুপারিশ করা হয়। সম্প্রতি তা প্রতিবেদন আকারে পাঠানো হয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগে। সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমে এমন খবর প্রকাশ হয়। ব্যাংকিং খাতে আস্থা ধরে রাখার জন্য খেলাপি ঋণের বিষয়টি গুরুত্ব দেয়া খুবই প্রয়োজন।
    ২০১৯ সাল পর্যন্ত বেসিক ব্যাংকের আর্থিক কর্মকাÐের ওপর কেন্দ্রীয় ব্যাংক একটি পরিদর্শন প্রতিবেদন তৈরি করেছে। ওই ব্যাংকের ৭২টি শাখার ওপর সব ধরনের সূচক বিশ্লেষণ করে এটি তৈরি করা হয় বলে জানা যায়। যার ওপর ভিত্তি করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এসব সুপারিশ করেছে। এতে উল্লেখ করা হয়, ২০১৯ সালের হিসাবে বেসিক ব্যাংকে ঋণ ছিল ১৩ হাজার ৮৩১ কোটি টাকা। এর মধ্যে খেলাপি ঋণ ৭ হাজার ৫৭৬ কোটি টাকা। নানা কারণে এ ব্যাংকের লোকসানের পরিমাণ দাঁড়ায় ৩২৭ কোটি টাকা।
    বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে একমত পোষণ করে আমরা বলতে চাই, কেন্দ্রীয় ব্যাংক শুধু পরিদর্শন রিপোর্ট দিলে হবে না। এর আলোকে শক্ত পদক্ষেপ নিতে হবে। এসব অনিয়মের পেছনে যদি পরিচালনা পর্ষদের কেউ জড়িত থাকে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে হবে। না হলে এসব রিপোর্ট দিয়ে কোনো প্রতিকার পাওয়া যাবে না।
    প্রতিবেদনে অন্যান্য সুপারিশে বলা হয়, ব্যাংকের অভ্যন্তরে সংঘটিত আর্থিক অনিয়মের বিষয়গুলো পরিচালনা পর্ষদের বৈঠক থেকে তদারকি জোরদার করতে হবে। খেলাপি ঋণ অবলোপনের ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশ পরিপালন এবং খেলাপিদের কাছ থেকে টাকা আদায়ের হিসাব ত্রৈমাসিক অন্তর কেন্দ্রীয় ব্যাংকে পাঠাতে হবে। একটি গণতান্ত্রিক দেশে সব প্রতিষ্ঠানের কাজ করার ক্ষেত্রে স্বাধীনতা যেমন জরুরি, তেমনই দরকার জবাবদিহিতা। এটি নিশ্চিত করতে না পারলে সুশাসন ও গণতন্ত্র অর্থবহ হয় না।

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ১১:০০ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি