• ভুয়া বিও আইডি বন্ধে কমিশনের নির্দেশনা

    বিবিএনিউজ.নেট | ২৫ জুন ২০১৯ | ৩:৫০ অপরাহ্ণ

    ভুয়া বিও আইডি বন্ধে কমিশনের নির্দেশনা
    apps

    একই জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর (এনআইডি), একই মোবাইল নম্বর এবং একই ব্যাংক হিসাব নম্বর বিভিন্ন বেনিফিশারি ওনার্স (বিও) হিসাবে ব্যবহার করার প্রমাণ পেয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এ ধরনের বেআইনি কর্মকাণ্ড বন্ধে এখন থেকে যে ব্যক্তির নামে বিও হিসাব সেই ব্যক্তির এনআইডি, ব্যাংক হিসাব ও মোবাইল নম্বর ব্যবহার করতে হবে। এক্ষেত্রে অন্য কোনো ব্যক্তির এনআইডি, ব্যাংক হিসাব কিংবা মোবাইল নম্বর ব্যবহারের সুযোগ নেই।

    বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম খায়রুল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ৬৯০তম কমিশন সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, কমিশন সব ডিপোজিটরি অংশগ্রহণকারীদের (ডিপি) জন্য বিও হিসাবে এনআইডি নম্বর, ব্যাংক হিসাব ও মোবাইল নম্বর ব্যবহারসংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করবে। এ সার্কুলারে বর্ণিত ধরনের ব্যত্যয় থাকলে তা আগামী ২১ জুলাইয়ের মধ্যে ডিপিদের সংশোধন করতে হবে।

    তাছাড়া এ সার্কুলার অনুসারে সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেড (সিডিবিএল) কমিশনের কাছে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে একটি কমপ্লায়েন্স প্রতিবেদন জমা দেবে যাতে কোনো ব্যত্যয় থাকলে সেটি উল্লেখ করতে হবে এবং সে অনুযায়ী কমিশন পরবর্তী সময়ে ব্যবস্থা নেবে।


    এর পাশাপাশি আলোচ্য সার্কুলারে বিও হিসাবে সংশ্লিষ্ট হিসাবধারীর ই-মেইল সংযুক্ত করার জন্য ডিপিদের অনুরোধ করা হবে। এতে বিও হিসাবধারীরা কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের সব বিবরণীসহ বিভিন্ন নোটিস সহজে পেয়ে যাবে।

    প্রসঙ্গত, প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) আবেদন, প্রি-আইপিও প্লেসমেন্ট শেয়ারে বিনিয়োগ ও সুবিধাভোগী ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে ভুয়া তথ্যের মাধ্যমে বিও হিসাব খোলার প্রবণতা থাকে। আইপিও আবেদনে শেয়ার প্রাপ্তি নিশ্চিত করার জন্য একই ব্যক্তি নিজ নামে এবং অন্যদের নামে কয়েকশ এমনকি হাজারেরও বেশি বিও হিসাব খোলার ঘটনা রয়েছে। অনিবাসী বাংলাদেশী (এনআরবি) কোটায় আইপিও শেয়ার পাওয়ার জন্য এনআরবি বিও হিসাব খোলার ক্ষেত্রে অসংখ্য অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে। এনআরবি না হয়েও ভুয়া তথ্য ব্যবহার করে বিও হিসাব খোলার নজির রয়েছে। তাছাড়া প্রি-আইপিও প্লেসমেন্টের বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ভুয়া বিও হিসাব ব্যবহারের অভিযোগ রয়েছে।

    এছাড়া সুবিধাভোগী ব্যক্তির আওতায় যারা রয়েছে, তারা নিজেদের পরিচয় গোপন রাখতে অন্যের নামে এমনকি ভুয়া তথ্য ব্যবহার করে বিও হিসাব খুলে এর মাধ্যমে বিনিয়োগ করে থাকে। এক্ষেত্রে নিজেদের পরিচয় গোপন রাখার পাশাপাশি নিয়ন্ত্রক সংস্থার নজরদারি এড়ানোই থাকে মূল উদ্দেশ্য। মূলত বিও হিসাব ব্যবহারের ক্ষেত্রে এসব বেআইনি কর্মকাণ্ড রুখতেই কমিশন নতুন এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ৩:৫০ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি