• সফলতার ২৩ বছরে পদার্পণ প্রিমিয়ার ব্যাংকের

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৬ অক্টোবর ২০২২ | ৭:০৫ অপরাহ্ণ

    সফলতার ২৩ বছরে পদার্পণ প্রিমিয়ার ব্যাংকের
    apps

    সফলতার সাথে এগিয়ে চলার ২৩ বছরে প্রিমিয়ার ব্যাংক দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন তরান্বিত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করার পাশাপাশি দেশের জনমানুষের আস্থাও অর্জন করেছে।

    বুধবার (২৬ অক্টোবর) রাজধানীর একটি হোটেলে এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এগিয়ে চলার ২৩ বছর উদযাপন করলো দি প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড। সুদৃশ্য কেক কেটে ২৩ বছর উদযাপন উদ্বোধন করেন ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা.এইচ.বি.এম. ইকবাল। ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এম রিয়াজুল করিম, এফসিএমএ এর সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য বি এইচ হারুন, এমপি; মোহাম্মদ ইমরান ইকবাল, জামাল জি আহমেদ, নাহিয়ান হারুন, স্বতন্ত্র পরিচালক নব গোপাল বনিক, কায়জার এ চৌধুরী, ব্যাংকের উপদেষ্টা মুহাম্মদ আলীসহ অন্যান্যরা।

    Progoti-Insurance-AAA.jpg

    দি প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. এইচ.বি.এম. ইকবাল বলেন, ‘শুরুটা হয়েছিলো সেই ১৯৯৯ সালে। তারপর থেকে আমরা মানুষের বিশ্বাস, আস্থা ও ভালোবাসায় আজকের অবস্থানে এসেছি। ১৩ জন পরিচালক নিয়ে আমাদের ব্যাংকিং কার্যক্রম শুরু হয়। আমাদের বোর্ডে কোনো সমস্যা বা অশান্তি নেই। আমাদের ব্যাংক দেশের বিভিন্ন খাতে উন্নয়নের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে।

    ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী এম. রিয়াজুল করিম, (এফসিএমএ) সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, সমৃদ্ধির এই পথচলা অব্যাহত থাকবে। প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড। এর সম্পদ ও আমানতের পোর্টফোলিও বর্তমানে (৩০.০৯.২০২২) যথাক্রমে ৩৮,২৮০ কোটি টাকা এবং ২৯,১৩০ কোটি টাকা, এ.ডি রেশিও ৭৪.২৬% যা গত বছর ছিল ৭৬.২২%। প্রিমিয়ার ব্যাংকের এল.সি.আর ১২৩.৯৬% যা গত বছর ছিল ১১৭.২১%, এন.এফ.এস.আর


    ১২৪.৫২% যা গত বছর ছিল ১২২.৩৮% এবং খেলাপি ঋণের হার ২.৭৬%। আমাদের এ.ডি রেশিও, এল.সি.আর, এন.এফ.এস.আর এবং খেলাপি ঋণের হার বাংলাদেশ ব্যাংকের স্ট্যান্ডার্ড অনুযায়ী খুব ভালো অবস্থানে আছে যা একটি ঈর্ষণীয় সাফল্য। আশা করছি আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে এই ব্যাংকটি সব ধরনের সূচকে দেশের শীর্ষ পর্যায়ের একটি ব্যাংক হয়ে উঠবে।

    ব্যাংকটির উপদেষ্টা মুহাম্মদ আলী বলেন, বাংলাদেশ ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হওয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের এই অগ্রযাত্রায় ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে বিগত ২৩ বছরে সাহসী এবং অগ্রগতিশীল উন্নয়ন কৌশল গ্রহণের ফলে প্রিমিয়ার ব্যাংক উল্লেখযোগ্য অবদান রেখে চলেছে।

    প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড দেশের প্রথাগত প্রচলিত ব্যাংকিং ব্যবস্থা থেকে বেরিয়ে এসেছে। আজ থেকে কয়েক বছর আগে এ ব্যাংকটি অন্য দশটি ব্যাংকের মতো প্রথাগত ব্যাংকিং পরিচালনা করতো। ব্যাংকটি এ ধারায় অনেক পরিবর্তন নিয়ে এসেছে। ব্যাংকটি গণমানুষের কাছে পৌঁছেছে। বিশেষ করে কুটির, ক্ষুদ্র, মাঝারি, কৃষি ও নারী উদ্যোক্তাসহ ব্যাপকসংখ্যক গ্রাহককে ব্যাংকিংয়ের আওতায় আনার জন্যে এ ব্যাংকটি কাজ করছে।

    অনেক আগেই এটিএম বুথ, এজেন্ট ব্যাংকিং, উপশাখা চালু করেছে। নাম্বার অব অ্যাকাউন্টস-এর পরিমাণও এখন বেশি হচ্ছে। আরএমজি খাতে ব্যাপক অবদান রাখছে। আমদানি-রপ্তানিতে এ ব্যাংকের প্রবৃদ্ধি অন্যান্য অনেক ব্যাংকের চেয়েই ভালো। দেশের গার্মেন্টস শিল্প খাতে প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে।

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ৭:০৫ অপরাহ্ণ | বুধবার, ২৬ অক্টোবর ২০২২

    bankbimaarthonity.com |

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে ব্যাংক বীমা অর্থনীতি